Education Opinion

অগাস্টে খুলবে সব কলেজ,ফাইনাল সেমেস্টারের পরীক্ষা জুলাইতে করার প্রস্তাব ইউজিসির !

করোনার জেরে শিক্ষাবর্ষ কি বদলে যাবে? এমন একটা প্রশ্ন ঘিরে জল্পনা চলছেই।

প্রেরনা দত্তঃ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) উচ্চশিক্ষায় পরীক্ষা ও শিক্ষাবর্ষের চূড়ান্ত নির্দেশিকা প্রকাশ করল। বুধবার প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে শুধু ফাইনাল বর্ষ বা চূড়ান্ত সেমেস্টার পরীক্ষা হবে জুলাই মাসে। যে সব পড়ুয়া ইন্টারমিডিয়েট সেমেস্টারে পড়ছেন (স্নাতকে ২ ও ৪, স্নাতকোত্তরে ২ এবং প্রযুক্তিতে ২, ৪ ও ৬) তাঁদের বর্তমান ও পূর্বতন সেমেস্টারের অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বরের নিরিখে গ্রেড বরাদ্দ করে মূল্যায়ন হবে। জানা যাচ্ছে, সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষাবর্ষ ধরে নিয়ে কলেজগুলিকে এগোনোর প্রস্তাব দিয়েছে ইউজিসি। সূত্রের খবর এমনটাই।

সূত্রের খবর, অগাস্টে দেশের সব কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে বলে জানিয়েছে ইউজিসি। নতুন ক্লাস শুরু হবে সেপ্টেম্বরে। সেজন্য অগাস্টের মধ্যে ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে, এমনভাবে পরিকল্পনা করার জন্য কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে বলেছে ইউজিসি।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছিলেন, “ইউজিসি কী প্রস্তাব দেয় দেখব। আমাদের রাজ্যের কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়গুলি কী বলছে। তা দেখব। সবটা দেখে তাদের সুবিধা বিচার করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। মমতা বলেছিলেন, চূড়ান্ত পরীক্ষা হবে। তবে মাঝপর্বে থাকা পড়ুয়ারা এক সেমেস্টার এগিয়ে যাবে। ইউজিসি বলছে, যে সব রাজ্য করোনামুক্ত হবে, সেখানে জুলাই মাসে ইন্টার মিডিয়েট পরীক্ষা নেওয়া যেতে পারে। তবে সবটাই নির্ভর করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই পরীক্ষা গ্রহণ ও দ্রুত ফলপ্রকাশে ইউজিসি পরীক্ষা পদ্ধতির গুচ্ছ সরলীকরণ করেছে। যেমন- বিশ্ববিদ্যালয় ৩ ঘণ্টার বদলে ২ ঘণ্টার পরীক্ষা নিতে পারে। অফলাইনের পরিবর্তে অনলাইনেও পরীক্ষা নিতে পারে। কোনও বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা নিতে না পারলে, মাঝপর্বে থাকা পড়ুয়ারা চলতি সেমেস্টারের অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের ৫০ শতাংশ ও পূর্বতন সেমেস্টারের ৫০ শতাংশ মার্কসের ভিত্তিতে তাঁর নম্বর চূড়ান্ত হবে। এই ব্যবস্থায় কোনও পড়ুয়ার অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের নম্বর পছন্দ না-হলে পরের বছর ইভেন সেমেস্টারের সঙ্গে আবার তিনি বিশেষ পরীক্ষায় বসতে পারেন।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: