Nation

অন্তঃসত্ত্বার ছিল না করোনা পরীক্ষা করা, তাই প্রসব য্ন্ত্রনাতেই তাকে ফেরত পাঠালো মুম্বইয়ের হাসপাতাল

অনেক প্রসূতিদের ডেলিভারিতে দেখা দিচ্ছে সমস্যা, করোনার কারনে নাজেহাল হচ্ছে সবাই

@ দেবশ্রী : করোনার জেরে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে অন্যান্য রোগীদের। সমস্যায় পড়লেন এক অন্তঃসত্ত্বা। উঠেছিল প্রসব বেদনা, কিন্তু তারপরেও বান্দ্রার বেসরকারি হাসপাতাল ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বাকে ভর্তি নিতে অস্বীকার করল। জানা যাচ্ছে, অন্তঃসত্ত্বার সঙ্গে তাঁর কোভিড-১৯ টেস্টের রিপোর্ট ছিল না, তাই তাঁকে ভর্তি নেওয়া হয়নি হাসপাতালে। প্রসূতির পরিবার টানা ৬ ঘণ্টা ওই হাসপাতাল চত্বরে ছিলেন, বারবার চিকিত্‍সকদের কাছে অনুনয় বিনয় করা হয়েছে মহিলাকে ভর্তি নেওয়ার জন্য। কিন্তু সেই অনুরোধ কোনো কাজে ফলেনি।

প্রসূতির পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, যে কোনও সময় বাচ্চা হয়ে যেতে পারে সেই মনে করেই তাঁরা হাসপাতাল চত্বরে ছিলেন। ওই প্রসূতির নাম নথিভুক্ত রয়েছে হোলি ফ্যামিলি হাসপাতালে। ডেলিভারির জন্য আগাম টাকাও জমা করে আছে।

জানা গিয়েছে, গত চারমাস ধরে সেখানকার গাইনোকোলজিস্টের পরামর্শও নিচ্ছেন প্রসূতি। শেষবার যখন হাসপাতালের গাইনিকে দেখাতে এলেন তখনও তাঁকে কেউই কোভিড-১৯ টেস্টের নির্দেশ দেয়নি। এদিন হাসপাতালের জরুরি বিভাগের এক চিকিত্‍সক তাঁকে দেখতে রাজিও হয়ে যান। তিনিও প্রসূতিকে পরীক্ষার পর হাতে ধরিয়ে দেন কোভিড-১৯ টেস্টের প্রেসক্রিপশন।

একপ্রকার বাধ্য হয়েই প্রসূতির পরিবার তাঁকে বান্দ্রার ভাবা হাসপাতালে নিয়ে যায়। যদিও তাঁর পরিবার এই কাজে সম্মত ছিল না। তবে য়াইহোক, সেই সময় প্রসূতির প্রসব যন্ত্রণা কমে যাওয়াতে বেসরকারি ল্যাবে কোভিড-১৯ টেস্টের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। শহরের বিভিন্ন হাসপাতাল করোনা পজিটিভ প্রসূতিদের ফেরাচ্ছে। তাই উপায় না দেখতে পেয়ে মুম্বই সেন্ট্রালের বি ওয়াই এল নায়ার হাসপাতাল ও পার্লের নানাবতী হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত প্রসূতিদের ডেলিভারীর ব্যবস্থা করেছে বিএমসি।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: