Big Story

অভিষেকে ভরসা কমেছে , শোভনের সাথে গোপন বৈঠক : মমতা ঘনিষ্ঠ রতন মুখোপাধ্যায়

কানন কে পেতে মরিয়া দিদি , ফিরবে কি। অভিষেক দক্ষিণ ২৪ পরগনায় নিজের আধিপত্য যত বিস্তার করেছে শোভনের সাথে দূরত্ব তত বেশি হয়েছে। পুরোনো নেতারা দলের আর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে ২৩ মেরে পর, তাই ছুড়ে ফেলে দেওয়া নেতা কে কুড়িয়ে নিতে রবিরবারের গোপন বৈঠক !

শোভন বিজেপিতে যেতে পারে হাওয়া উঠেছে সাথে আছে বৈশাখী , আর দেরি নয় ভাঙা ঘর গুছাতে মমতা তৎপর। হয়তো পরামর্শ এসেছে pk এর থেকে।
অনেকদিন ধরে মমতা শোভনের সম্পর্ক খারাপ , তাই দলের সাথে দূরত্ব রেখে আলাদা আছেন শোভন। চার সপ্তাহ আগে ববি হাকিক একদা যিনি শোভন বিরোধী তিনি ফোন করেছিলেন , কথা হয়েছিল , বিশেষ সূত্রে মমতার নির্দেশেই ফোন করেছিলেন ববি। ফিরে আসার কথাও হয়। কিন্তু শোভন বৈশাখী কিছুই বলেন নি এই বিষয়ে।

গত সপ্তকে শোভন বান্ধবী বৈশাখী ও পার্থ চ্যাটার্জী কথা হয় , সূত্র মারফত জানা যায় আলোচনা হয় শোভন কে ফিরিয়ে আনা যায় কিনা। তবে যাই হোক শোভন যে একটা ফেক্টার এটা প্রমাণিত।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দূত রতন মুখোপাধ্যায় কলকাতার প্রাক্তন মেয়রের বাড়িতে রবিবার সকালে হাজির হলেন । মমতার বাড়ি লাগোয়া অফিসের কালীঘাটে দীর্ঘ দিনের সহ কর্মী, সেই রতনবাবু এ দিন শোভনের সঙ্গে প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠক করেছেন বলে তৃণমূল সূত্রের খবর। শোভনকে রতন অনুরোধ করেছেন বলে খবর দলের জন্য আবার পূর্ণমাত্রায় সক্রিয় হতে বলেন। বড় দায়িত্ব নিয়ে কাজ পেতে পারেন । যে তৎপরতা নিয়ে এই বৈঠক তাতে বলা যায় মমতার ভরসা পুরোনোতেই ফিরছে।

শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে হাজির হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের খুব কাছের বৃত্তে থাকা রতন মুখোপাধ্যায় রবিবার বেলা ১১টা ৫০ মিনিট নাগাদ ।এক ব্যবসায়ী শোভনকে দলে ফেরার অনুরোধ করেন। সকালে রতন মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মানভঞ্জনের বিষয় টি এখনো বলা যায় না যে মিটে গেছে।

রতন মুখোপাধ্যায় প্রায় ১ ঘণ্টা ছিলেন বলে জানা গিয়েছে শোভনের গোলপার্কের ফ্ল্যাটে এ দিন। পুরানো সম্পর্খের উষ্ণতা ছাপ ছিল বলে শোভন ঘনিষ্ঠদের দাবি। শোভন নীরবে থাকলেও দলের বিরুদ্ধে কোন সমালোচনা করেন নি।তবে তৃণমূলের বহুনেতাদের বিরুদ্ধে শোভনের ক্ষোভ আছে এটা মমতা জানেন।

ববি হেকিম , অরূপ বিশ্বাস , শুভেন্দু , ও অভিষেকের সাথে সম্পর্ক অত্যন্ত তিক্ততা আছে অতীতের ব্যবহারে। তবে ইঙ্গিত মিলেছে যে বরফ গলছে মমতার বিপদের আঁচে , ববির ফোন ,পার্থ চ্যাটার্জীর – বৈশাখী কথা , গতকাল মমতার বন্ধ্যোপাধ্যায়ের সাথে বেহালার ১৭ জন কাউন্সেলরের মিটিং সব মিলিয়ে বার্তা এক ” ঘরের ছেলে ঘরে আয় ”

আজই বেহালা রায় বাহাদুর অঞ্চলে প্রায় ৫০০ মত তৃণমূল কর্মী নেতা যুক্ত হয়েছে বিজেপিতে দিলীপ ঘোষ এই মিটিং ছিলেন। কানাঘুসো চলছে ১৯ জন কাউন্সেলর এর মধ্যে ১০ জন বিজেপিতে যুক্ত হবে কদিনের মধ্যে। তাই শোভনকে ফেরানো ছাড়া আর কোন উপায় নেই মমতার , কারণ ২৪ পরগনা দক্ষিণ সহ বেশ কয়েকটি জেলায় শোভনের সংঘটন ভালো আছে। তাই এই দুর্দিনে শোভন কে ফিরে পেতে চায় তৃণমূল আর দিদি তার কানন কে ফেরাতে চান এই বার্তায় বয়ে নিয়ে গেছেন মমতা ঘনিষ্ঠ রতন মুখার্জী।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: