Education Opinion

অযথা আতঙ্কিত হবেন না, যাদবপুর পড়ুয়াদের নয়া প্রচেষ্টা

সবুজ সংকেত মিলতেই বাজারে আসবে যাদবপুরের পড়ুয়াদের তৈরি এই যন্ত্র।

পল্লবী : ভিড়ের মধ্যে যিনি আচমকা কেশে উঠলেন আদৌ তিনি করোনা আক্রান্ত কি না, তা বলে দেবে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের তৈরি যন্ত্র। সোমবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে জানানো হয়েছে এই যন্ত্রের কথা। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আইসিএমআর এই যন্ত্র নিয়ে ইতিবাচক মন্তব্য করেছে। চিকিত্‍সকদের একটি অংশও বিশেষ প্রশংসা করেছেন। তবে এখনও এর ক্লিনিক্যাল টেস্ট হয়নি। যদিও তা শীঘ্রই সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়। সেখানে সবুজ সংকেত মিলতেই বাজারে আসবে যাদবপুরের পড়ুয়াদের তৈরি এই যন্ত্র।

এ প্রসঙ্গে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার স্নেহমঞ্জু বসু জানিয়েছেন, ‘করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও গবেষণা থেমে নেই। ছাত্র-ছাত্রীরা একদিকে যেমন গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন। অন্যদিকে, দুস্থদের সেবায় নিজেদের নিয়োজিত করেছেন। কর্মীরা মাস্ক এবং স্যানিটাইজার তৈরি করছেন। আমরা আগেই মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ১৫ লক্ষ টাকা দিয়েছি। এদিন আবারও কুড়ি লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে।’

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনা মোকাবিলায় যথা সাধ্য সরকারের পাশে থাকার চেষ্টা করছে। যাদবপুরের বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠন আলাদা আলাদা করে মুখ্যমন্ত্রীর তহবিলে টাকা দিয়েছে। এছাড়াও কর্মীদের এক দিন থেকে এক সপ্তাহ পর্যন্ত মাইনে কাটার অপশন দেওয়া হয়েছিল। তাঁদের ইচ্ছামত বেতন থেকে টাকা কেটে ত্রাণ তহবিলে দান করা হয়েছে। আর এবার যাতে অযথা আতঙ্ক ন্স ছড়ায় সেদিকে নজর দিয়ে তৈরী করা হলো নয় যন্ত্র।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: