Women

অ্যাসিড হামলার প্রচার টিকটকে, টিকটকারের বিরুদ্ধে দায়ের এফআইআর

ফয়জল সিদ্দিকি প্রখ‍্যাত টিকটক তারকা আমির সিদ্দিকির ভাই ও নবাব টিমের সদস‍্য।

প্রেরনা দত্তঃ Tik Tok বনাম YouTube বিতর্কে সরগরম নেটদুনিয়া। সেই বিতর্কের মাঝেই এবার টিকটকের মাধ্যমে নারীদের উপর অ্যাসিড হামলার সপক্ষে প্রচার চালিয়ে বিতর্কে টিকটকার ফয়জল সিদ্দিকি, ইউটিউবারদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেওয়া আমির সিদ্দিকির ভাই ফয়জল সিদ্দিকি। ফয়জল সিদ্দিকি নামে ওই টিকটকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ভিডিও করে মহিলাদের ওপর অ্যাসিড অ্যাটাকের সমর্থন করছিলেন তিনি। বিষয়টিকে প্রথম জনসমক্ষে আনেন বিজেপি নেতা তাজিন্দর সিং বাগ্গা। ফয়জলের ভিডিওটিতে জাতীয় মহিলা কমিশনের প্রধান রেখা শর্মাকে ট‍্যাগ করে কড়া পদক্ষেপ নিতে অনুরোধ করেন তিনি। রেখা জানান, বিষয়টা নিয়ে তিনি পুলিশ ও টিকটক কর্তৃপক্ষ উভয়কেই লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন।

সোমবার টুইট বার্তায় জাতীয় মহিলা কমিশনের তরফে জাননো হয়, ‘ডিজিপি মহারাষ্ট্র শ্রী সুবোধ কুমার জয়সওয়ালের কাছে ফয়জল সিদ্দিকির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় মহিলা কমিশন। তাঁর ভিডিয়োয় মহিলাদের বিরুদ্ধে ঘটে চলা জঘন্যতম অপরাধ অ্যাসিড আক্রমণকে মান্যতা দিয়েছে সে, এবং টিকটকের মাধ্যমে তার প্রচার চালিয়েছে’। টুইট বার্তার সঙ্গে মহারাষ্ট্রের ডিজিপিকে লেখা চিঠির প্রতিলিপিও শেয়ার করা হয় জাতীয় মহিলা কমিশনের তরফে।

ফৈজল সিদ্দিকির অ্যাটাক নিয়ে একটি ভিডিও বানিয়েছিল যেখানে দেখানো হয়েছে সে একটি মেয়েকে বলছে, যে আমাকে যার জন্য ছেড়ে গিয়েছিলে সে তোমায় ছেড়ে দিয়েছে। এই সংলাপ বলতে বলতেই হাতে থাকা গ্লাস থেকে তরল পদার্থ হঠাৎ একটি মেয়ের দিকে ছুঁড়ে মারে। মেয়েটির মুখ সঙ্গে সঙ্গে পুড়ে যায় (প্রস্থেটিক মেকআপ দেখে তেমনই মনে করছেন নেটিজেনরা)। নেটিজেনদের মতে এই ভিডিও সিম্বলাইজ করছে অ্যাসিড আক্রান্তদের। বিষয়টি অ্যাসিড অ্যাটাককে প্রচার করছে। কোনও মেয়ে তার প্রেমিককে ছেড়ে দিলে সেই প্রেমিকের তার উপর অ্যাসিড হামলা করা উচিত এই ছিল ভিডিওর বার্তা।

ফয়জলের ভাই আমির সিদ্দিকির বিরুদ্ধেও বিতর্কিত চীনা টিকটক ভিডিও বানানোর অভিযোগ রয়েছে। অ্যাসিড অ্যাটাকের প্রচারের বিতর্কিত ভিডিওটিতেও দেখা গিয়েছিল আমিরকেও। অন্যদিকে অভিষেক রাজপুত নামে এক আইনজীবীও ফয়জলের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন। নিজের টুইটার হ‍্যান্ডেলে বিষয়টি প্রকাশ‍্যে আনতেই দাবি ওঠে ভিডিওটির মেয়েটির বিরুদ্ধেও অভিযোগ দায়ের করা হোক।
ভিডিওর তীব্র নিন্দা ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিন্তু অবাক করার বিষয় হল ভিডিওটির সমর্থনে এখনও অনেকে মন্তব্য করে চলেছে, যাদের মধ্যে অধিকাংশই মহিলা।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: