West Bengal

আবারো রক্তাক্ত নিমতা , খুন হলেন নিমতার তৃণমূল নেতা

পাল্টা রাজনীতির মাসুল গুনছে রাজ্যবাসী , দল পরিবর্তনে খুন সন্ত্রাস বন্ধ হলো না অভিযোগ বিজেপির দিকে

পাল্টা শত্রুতার জেরে খুন বলে সন্দেহ করছেন ,পুরনো শত্রুতার জেরেই কি খুন? নিমতার তৃণমূলনেতা খুনে উঠে আসছে দুই ভাইয়ের নাম। থমথমে হয়ে রয়েছে পরিবেশ বুধবার সকাল থেকে । এলাকায় পুলিস পিকেট বসানো হয়েছে।পুলিসের হাতে উঠে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য নিমতায় তৃণমূল নেতা খুনে । সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলের যোগ দিয়েছিলেন নিহত তৃণমূল নেতা নির্মল কুণ্ডু , ৪ বছর আগে ।

নিমতা এলাকার ত্রাস লাল্টু ও বিল্টুর সঙ্গে ঝামেলা হয় নির্মলের ,তৃণমূলের যোগদানের পর বেশ কয়েকবার । তা নিয়ে এলাকায় চাপা উত্তেজনা ছিল। লাল্টু ও বিল্টুকে গ্রেফতার করে পুলিস পরে কিছু মামলায় । জেল থেকে ছাড়া পেয়েছে লাল্টু ও বিল্টু কিছুদিন আগে। পুলিসের অনুমান, এই ঘটনার পিছনে লাল্টু, বিল্টুরও হাত থাকতে পারে। পুরনো শত্রুতার জেরে এই খুন বলে মনে করা হচ্ছে।

এলাকায় পুলিস পিকেট বসানো হয়েছে,বুধবার সকাল থেকেও থমথমে হয়ে রয়েছে পরিবেশ। ঘটনার দিন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিমতার ঠাকুরতলায় তৃণমূলনেতাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। পাড়ার মুখে দাঁড়িয়েছিলেন উত্তর দমদম পুরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল সভাপতি নির্মল কুণ্ডু। বাইকে চড়ে আসে দুই দুষ্কৃতী। নির্মলবাবুর মাথা লক্ষ্য করে গুলি চালায় তারা।প্রতক্ষ্যদর্শী রা জানান একদম কাছ থেকে গুলি করা হয় , তাঁকে সঙ্গে সঙ্গে বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নির্মল কুণ্ডুকে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসক । এই পুরো ঘটনাটি ধরা পরে যায় সিসিটিভি ফুটেজে , তবে ওই বাইকে কারা ছিল সেটা বোঝা যায়নি।

এপ্রসঙ্গে এমপি সৌগত রায় বলেছেন, ”আমাদের সন্দেহ বিজেপির মদতপুষ্ট সমাজবিরোধী ও অপরাধীরা এটা করেছে। কয়েকদিন ধরেই পুলিস বলা হচ্ছিল এখানে অনেক বাইরের লোক আসছে। কিন্তু পুলিস সে রকম কোন ব্যবস্থা নেয়নি। নির্মল কুন্ডু আমাদের দলের একটা স্তম্ভ ছিল এইসব এলাকায়। তাঁর মৃত্যু আমাদের অপূরণীয় ক্ষতি করেছে।”
পাল্টা দোষারোপে নির্মল এর ফিরবেনা , এখন দেখার দোষীরা সাজা পাবেন কি না ?

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: