Nation

আবারো সারা বিশ্বের কাছে দ্রষ্টব্য হয়ে রইলো ট্রাম্প-মোদী ‘ফ্রেন্ডশিপ’

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমেরিকা বাড়িয়ে দিলো সাহায্যের হাত

পল্লবী : একের পর এক মতবিরোধ, তার ওপরে চলছে একে অপরকে তুমুল দোষারোপ। কিন্তু, এই পরিস্থিতির আগে যে সম্পর্ক ছিল তাদের মধ্যে তা যে দৃষ্টান্ত তা বলার কথা নয়। তাই এত সহজে সেই বন্ধন ভাঙ্গারও নয়। হাজারো সংঘাতের পরেও ট্রাম্প তার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন বন্ধু মোদী জির দিকে। আমেরিকার ‘সেন্ট্রাল ফর ডিজ়িজ় কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনস’ (সিডিসি)-এর পক্ষ থেকে ৩৬ লক্ষ ডলার দেওয়া হল ভারত সরকারকে।

মার্কিন প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়েছে, এই অর্থ করোনাভাইরাস সংক্রান্ত গবেষণাগার তৈরি, পরীক্ষা কেন্দ্র বাড়ানো এবং ‘মলিকিউলার ডায়াগোনেসিস’ করার কাজে লাগানো হবে। এর পাশাপাশি আজ মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেয়ো ভিডিয়ো কলের মাধ্যমে কথা বলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে। হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, এই অতিমারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আন্তর্জাতিক সহযোগিতার গুরুত্ব, তাতে স্বচ্ছতা বজায় রাখার মতো বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা হয়েছে দুই নেতার। ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক স্তরে কোনও স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সঙ্কট দেখা দিলে তা প্রতিহত করার বিধি কেমন হবে, তা নিয়েও কথা হয়েছে দু’পক্ষের।

ভারত ছাড়াও ব্রাজিল, ইজ়রায়েল, জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়ার বিদেশমন্ত্রীদের সঙ্গেও কথা বলেছেন পম্পেয়ো। আমেরিকায় নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত তরণজিত্‍ সিংহ সাঁধু সে দেশের এশিয়া গ্রুপ নামে একটি সংগঠনের সঙ্গে ভিডিয়ো বৈঠক করে জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস প্রমাণ করে দিয়েছে যে, উপস্থিত আন্তর্জাতিক ব্যবস্থার মধ্যে সীমাবদ্ধতা রয়েছে। তাঁর কথায়, ”কোভিড-১৯ মোকাবিলার জন্য প্রয়োজন এমন বিশ্বায়নের, যার মূল লক্ষ্য হবে মানবিকতা এবং সাম্য।”

চারিদিকে মতবিরোধ থাকলেও এখনো ঐক্য যে জিয়ে আছে তা স্পষ্ট আছে। আর এটাও স্পষ্ট যে, এই ঐক্যের মধ্যে অসাধুতার কোনো জায়গা নেই।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: