West Bengal

আরও আতঙ্ক, কেন্দ্রীয় দলের এসকর্ট টিমের বিএসএফ জওয়ান ও গাড়ি চালক করোনা সংক্রমিত

বিএসএফ জওয়ান ও গাড়ি চালকের ঘটনা চিন্তা বাড়াচ্ছে প্রশাসনের

@ দেবশ্রী : দেশে করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ আতঙ্ক ছড়াচ্ছে মানুষের মনে। বেড়ে চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। কিছু দিন আগে, করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক আন্তঃমন্ত্রক দল পাঠিয়েছিল বাংলায়। দক্ষিণবঙ্গের চার জেলা ঘুরে দেখেছে অপূর্ব চন্দ্রের নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় দল। কিন্তু সেই দল দিল্লি ফিরে যাওয়ার পর করোনা পজিটিভ ধরা পড়ল তাদের এসকর্টের দায়িত্বে থাকা এক বিএসএফ জওয়ানের। কেবলমাত্র তাই নয় কেন্দ্রীয় দলের সদস্যরা যে গাড়িতে করে ঘুরেছেন, সেই চালকের শরীরেও কোভিড-১৯ সংক্রমণ মিলেছে। বর্তমানে দু’জনকেই ভর্তি করা হয়েছে এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালে।

কেন্দ্রীয় দলের এসকটের দায়িত্বে থাকা বিএসএফ জওয়ান এবং গাড়ির চালকের করোনা পজিটিভ হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছেন রাজ্যের স্বাস্থ্যসচিব বিবেক কুমার। এর ফলে কেন্দ্রীয় দলের সদস্যদের সংক্রামিত হওয়ার ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। যদিও ওই সদস্যদের ক্ষেত্রে কী সতর্কতামূলক পদক্ষেপ করা হচ্ছে, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত দিল্লির তরফে সে ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।

রাজ্যে দু’টি আন্তঃমন্ত্রক দল পাঠিয়েছিল দিল্লি। ১৮ এপ্রিল তারা রাজ্যে পৌঁছেছিল। দক্ষিণবঙ্গের দলটি বেস ক্যাম্প করেছিল গুরুসদয় রোডের বিএসএফ গেস্ট হাউসে। সেখান থেকেই কলকাতা, হাওড়া, উত্তর ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরের বিভিন্ন বাজার, কোয়ারেন্টাইন সেন্টার, কোভিড হাসপাতাল ও কন্টেইনমেন্ট জোন ঘুরে দেখেন অপূর্ব চন্দ্র-সহ অন্যান্য সদস্যরা। সেই গোটা সফরে নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিল সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর একটি দল। তার মধ্যে ছিলেন করোনা আক্রান্ত জওয়ানও। শুধু তাই নয়, ওই কেন্দ্রীয় দল গিয়েছিল নবান্নেও। তখনও সঙ্গে ছিলেন বিএসএফ জওয়ানরা। এমনকি মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা গিয়ে গুরুসদয় রোডের বিএসএফ গেস্ট হাউসে কেন্দ্রীয় দলের সদস্যদের সঙ্গে দেখাও করে আসেন। চিন্তা বাড়িয়েছে বিএসএফ জওয়ান ও গাড়ির চালকের করোনা পজিটিভ হওয়ার ঘটনা।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: