Health

আশার আলো নিয়ে এলো প্লাজমা থেরাপি

থেরাপির ফলে সুস্থ হলো করোনা আক্রান্ত রোগী

পল্লবী : করোনা রুখতে তার সংক্রমণ রুখতে একমাত্র টেস্টটিং যা এখনো পর্যন্ত সফলভাবে শুরু করে উঠতে পারেনি ভারত। তবে দিল্লিতেই ইতিমধ্যে শুরু করা গেলো প্লাজমা থেরাপি এবং তার ব্যাবহারে নাকি সফল চিকিৎসকেরা। সুস্থ হয়েছেন রোগী। এই প্রথম করোনা চিকিত্‍সায় প্লাজমা থেরাপিতে সাফল্য পেল ভারত। দিল্লির সাকেতে ম্যাক্স হাসপাতালে সেরে উঠছেন রোগী। তাঁকে ভেন্টিলেটর থেকে বের করে আনা হয়েছে।

তাহলে চলুন স্বল্প বিস্তরে জেনে নেওয়া যাক কি এই থেরাপি ? এতে করোনা আক্রান্ত রোগী সেরে ওঠার পর তাঁর রক্তের প্লাজমা অন্য আক্রান্ত রোগীর শরীরে প্রবেশ করিয়ে অ্যান্টিবডি তৈরি করা হয়। তাতে করোনা দমন করা সম্ভব হয়। এমনই মনে করছেন চিকিত্‍সকরা। এটি প্রথম শুরু করে আমেরিকা এবং তারা ফল ও পায় তাই এবার সেই পথেই হাঁটলো ভারত।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল গত কয়েকদিন ধরেই প্লাজমা থেরাপির কথা বলে চলেছেন। এর জন্য করোনায় সেরে ওঠা রোগীদের সাহায্যে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। গোটা দেশেই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে চলেছে। পরিস্থিতি এতটাই উদ্বেগজনক যে চিকিত্‍সার খোঁজে হন্যে হয়ে উঠেছেন চিকিত্‍সকরা। এই পরিস্থিতিতে প্লাজমা থেরাপি নতুন করে আশার আলো দেখাচ্ছে।

তাই এবার প্লাজমা থেরাপি কাজে আসায় সেই পথেই আপাতত এগোবে দেশ। যে রোগীর দেহে পরীক্ষা করা হয়েছে তার অবস্থা খুব একটা ভালো ছিলোনা কিন্তু থেরাপির ফলে অবস্থার উন্নতি ঘটে। কিন্তু এর সাথে সাথে ভ্যাকসিন তৈরির দিকটাও তীক্ষ্ণ নজরে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। থেরাপির পর সেই রোগীর দেহে যদি প্রযোজ্য ভ্যাকসিন দেওয়া সম্ভব হয় তবে সম্পূর্ণ বিপদ মুক্ত হবে রোগী এমন টাই ধারণা করা যাচ্ছে।

সব মিলিয়ে এখন সময় এসেছে ধর্মের ওপরে উঠে মনুষ্য ধর্মের জাগরণ ঘটানোর। এখন হিন্দু,মুসলিম,খ্রিস্টান সকলের রক্ত এক হয়ে বাঁচাবে হাজারো প্রাণ।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: