Health

এবার ভাইরাসকে চুন চুনকে খুঁজে বের করবে ফেলুদা স্ট্রিপ

এই স্ট্রিপ বাজারে ৫০০ টাকার বিনিময়তেই পাওয়া যাবে, জানালেন বিজ্ঞানীরা

পল্লবী : পর পর ভারতের হাতে আসছে সাফল্য। প্রথমে এলিজা রাপিড টেস্ট কীট আর এবার টেস্ট স্ট্রিপ। করোনা মোকাবিলায় আরো এক ধাপ এগিয়ে গেলো ভারত। এই টেস্ট স্ট্রিপে সহজেই সামনে আসবে যার পরীক্ষা করা হয়েছে তিনি আদৌ কোভিড ১৯ সংক্রমিত কিনা । তবে এখানেই এর চমক শেষ নয়। আসল চমক হলো এই কীটের নাম ফেলুদা। ফেলুদা যেমন চুন চুনকে সব রহস্য ভেদ করে অপরাধীদের ধরতেন এই টেস্ট কীট ও সেই ভাবেই ভাইরাসকে খুঁজে বের করবে, এমন তাই বিশ্বাস বিজ্ঞানীদরে।

এই টেস্ট স্ট্রিপের ছোট কাগজে লাইন এলেই বোঝা যাবে যার টেস্ট করা হয়েছে তিনি আদৌ করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত কিনা । সিএসআইআর -র বিজ্ঞানীরা র‍্যাপিড করোনা টেস্টের এই কিট বানানোয় বড় সাফল্য পেয়েছেন । সিএসআইআর সম্পর্কিত জিনোমিকী আর সমবেত জীব বিজ্ঞান সংস্থানের বিজ্ঞানীরা এই স্ট্রিপ আবিষ্কার করেছেন । আর দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই কিটে অনেক তাড়াতাড়ি পরীক্ষার ফল সামনে আসছে । আইজিআইবি -র বৈজ্ঞানিক ডক্টর দেবজ্যোতি চক্রবর্তী জানিয়েছেন, সংক্রমিত হয়েছে এমন সন্দেহ হলে সেই ব্যক্তির করোনা ভাইরাসের জিনোমিক অনুক্রম খতিয়ে দেখা হবে এই পেপার কিটে । জিন সম্পাদনের একেবারে আধুনিক পদ্ধতি ব্যবহার করে ক্রিস্পার কেস ৯ -র সহযোগে ফলাফল বেরিয়ে আসবে এক ঘণ্টার মধ্যে । এই পরীক্ষা কিট ব্যবহার করে আরও বড় স্তরে ও প্রচুর সংখ্যায় করোন সংক্রমণের টেস্ট করা যাবে ।

ডক্টর শৌভিক মাইতি ও ডক্টর দেবজ্যোতি চক্রবর্তী -র যৌথ রিসার্চের এই ফল । এই কিট পরীক্ষার এক ঘণ্টার মধ্যেই ফল জানিয়ে দেবে যে যাঁর পরীক্ষা হল তিনি আদৌ করোনা ভাইরাস সংক্রমিত কিনা । বৈজ্ঞানিকরা জানিয়েছেন আর প্রচলিত পরীক্ষাগুলির নিরিখে এই পরীক্ষাপদ্ধতি যেমন দ্রুত ফল দেবে ঠিক তেমনিই এই পদ্ধতিতে পরীক্ষা অনেক সস্তা । এই পরীক্ষায় খরচা ৫০০ টাকা। যদি এটি অনুমোদন পায় তবে অনেক বোরো সাফল্য এনে দিতে সক্ষম হবে এমনটাই মনে করছেন তারা।

কিন্তু প্রশ্ন হলো এই মুহূর্তে আইসিএমআর নিজেদের গবেষণা ছাড়া অন্যদিকে তেমন নজর দিতে পারছেন না। এমনটা তো হতেই পারে যে এই টেস্ট কীট গুলিও বিরাট সাফল্য এনে দিতে পারে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: