Health

করোনা রিপোর্ট পজেটিভ, কিন্তু হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে এলেন সাংসদের বাবা

বাড়িতে থেকেই হবে চিকিৎসা, তবে বিশেষজ্ঞদের মতে বাড়তে পারে সংক্রমণ

@ দেবশ্রী : এখনও রোগী করোনা মুক্ত নয়, সেরে ওঠার আগেই তাকে নিয়ে যাওয়া হল বাড়িতে। জানা যাচ্ছে, একটি বেসরকারি হাসপাতাল থেকে করোনা আক্রান্ত অবস্থায় বাড়ি ফিরলেন রাজ্যের শাসক দলের এক সাংসদের বাবা। স্বাস্থ্য সূত্রের খবর, করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ায় কিছু দিন আগে ওই বৃদ্ধকে ইএম বাইপাসের ধারে একটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। কিন্তু বুধবার রাতে সেই হাসপাতাল থেকে তাঁকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কিন্তু তাঁর শরীর সংক্রমণমুক্ত বা করোনা-নেগেটিভ হয়নি বলেই ওই সূত্রের দাবি। ফলে আপাতত তিনি পূর্ব কলকাতায় ‘হোম-কোয়রান্টিন’ বা গৃহ-নিভৃতবাসে থাকবেন।

চিকিত্‍সকদের একাংশ জানাচ্ছেন, সম্প্রতি রাজ্য সরকার পরামর্শ দিয়েছে, করোনার উপসর্গ থাকলেও বাড়িতে নিভৃতবাসে থেকেই চিকিত্‍সা করানো যেতে পারে। সে-দিক থেকে শাসক দলের সাংসদের বাবাই রাজ্যে সেই চিকিত্‍সা-পদ্ধতির প্রথম রোগী। এ ক্ষেত্রে পৃথক ঘরে নিভৃতবাস এবং ২৪ ঘণ্টা নির্দিষ্ট ‘কেয়ার গিভার’ রেখে সুরক্ষা-পদ্ধতি অবলম্বন করেই চিকিত্‍সা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব।

যদিও জনস্বাস্থ্য-বিশেষজ্ঞদের অনেকেই মনে করছেন, এই পদ্ধতিতে সংক্রমণ আরও ছড়িয়ে পড়তে পারে। কারণ, অনেক সময়েই সংক্রমণ শুরুর দ্বাদশতম দিনে ফের কিছু উপসর্গ দেখা দেয়। আর তা ঠিকমতো নজরে না-এলে আশপাশের লোকজনের মধ্যেও সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকে যায়। ওই বিশেষজ্ঞদের মতে, রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরেও রোহিকে অন্তত দু’দিন পর্যবেক্ষণে রেখে ছুটি দেওয়াটাই নিয়ম। রোগীকে তড়িঘড়ি ছেড়ে দিলে সমস্যা বাড়বে বই কমবে না। তাতে সংক্রমণের আশঙ্কা আরও বাড়ে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: