Big Story

করোনা সংক্রান্ত ডেটা জানানোর এই অ্যাপ ইনস্টল করলেই টাকা গায়েব! সতর্ক করল CBI

ফোনে ইনস্টল করলেই ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের ডিটেলস নিয়ে নিচ্ছে । তারপর অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা লোপাট হয়ে যাচ্ছে।

প্রেরনা দত্তঃ লকডাউনের জেরে দুশ্চিন্তায় জেরবার সাধারণ মানুষ। এরই মধ্যে উদ্বেগ বাড়াল ‘করোনা অ্যাপ’। সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনলাইনে coronavirus app নামে নানান ক্ষতিকর অ্যাপ ছেড়ে ফাঁদ পেতেছে হ্যাকাররা।

করোনা ভাইরাসের আপডেট দিতে একগুচ্ছ অ্যাপ বেরিয়েছে। অনেক অ্যাপ আবার দাবি করছে, আপনার উপসর্গগুলি দিলেই নাকি বলে দেবে, আপনার করোনা আছে কি না । বহু মানুষ ইনস্টল করছেন সেই সব অ্যাপ । সতর্ক করল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা বা সিবিআই।

সম্প্রতি ইন্টারপোল থেকে সিবিআই-কে একটি নোটিস পাঠানো হয়েছে। ব্যাঙ্কিং ট্রজেন Cerberus নিয়ে। সিবিআই-এর সতর্কবার্তায় রাজ্যগুলিকে বলা হয়েছে, ‘কিছু সফটওয়্যার করোনা অতিমারির সুযোগ নিচ্ছে। এসএমএস-এ মানুষকে লিঙ্ক পাঠাচ্ছে। ভয়ে অনেকে ওই লিঙ্কে ক্লিক করছেন। তারপরেই টাকা অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে যাচ্ছে।’

ভারতেই কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা এক লক্ষেরও বেশি। আর এই কোভিড-১৯ এর তথ্য আদানপ্রদানের মাধ্যমেই নাকি আমজনতার ব্যক্তিগত সমস্ত আর্থিক তথ্য ফাঁস হয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ্যে এনেছে সিবিআই। জানা গিয়েছে এই ‘সারবেরাস’ সফটওয়্যারের মাধ্যমে স্মার্টফোনে ঢুকে পড়ে ট্রোজান ভাইরাস (Trojan virus)। মূলত আর পাঁচটা সাধারণ মেসেজের মত ফোনের একটি মেসেজ আসে। যেখানে বলা হয়, একটি লিঙ্কে ক্লিক করলেই করোনাভাইরাস সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য পাওয়া যাবে। এক ক্লিকেই কোভিড-১৯ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য জানতে আগ্রহীরা ওই লিঙ্কে ক্লিক করলেই ফোনের মধ্যে ঢুকে পড়ে অবাঞ্ছিত ভাইরাস। আর তার মাধ্যমেই ফাঁস হয়ে যায় একের পর এক আর্থিক তথ্য।

প্রাথমিক ভাবে ক্রেডিট কার্ডের নম্বরই ফাঁস হয় এই সফটওয়্যার এবং ভাইরাসের মাধ্যমে। তবে নির্দিষ্ট ব্যক্তির অন্যান্য ব্যক্তিগত তথ্য জেনে ফেলা এবং টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন ডিটেলস অর্থাত্‍ অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে সুরক্ষিত রাখা তথ্য ফাঁস করতেও এই ভাইরাসের জুড়ি মেলা ভার। ফাঁস হওয়া তথ্যের সাহায্যে কোনও ব্যক্তির ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে বেআইনি ভাবে টাকা তুলে নেওয়াও সম্ভব হয়।

সিবিআই জানাচ্ছে, প্রথমেই টার্গেট করা হচ্ছে ক্রেডিট কার্ডকে। ইতিমধ্যেই একাধিক রাজ্যের পুলিশ এই ভাবে টাকা চুরির অভিযোগ পেয়েছে। সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনাভাইরাস নিয়ে মানুষ উদ্বেগে রয়েছে। অনলাইনে এই বিষয়ে সার্চ উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে। আর এই সুযোগই কাজে লাগাচ্ছে হ্যাকাররা।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: