West Bengal

কাটমানি ক্যান্সার আক্রান্ত পেশেন্ট-কেও ছাড়েনি : বিক্ষোভের আঁচ মালদহের ইংরেজবাজার !

লক্ষ লক্ষ টাকা কাট মানির অভিযোগ, বাড়ি পাবে এই আশায় টাকা দিয়ে পথে ক্যান্সার আক্রান্ত পরিবার, কাঠগড়ায় প্রধান এবং মেম্বার,

আবারো কাটমানির অভিযোগ। এবারে লক্ষ লক্ষ টাকা কাটমানি নেবার অভিযোগ উঠল মালদহের ইংরেজবাজার ব্লকের নরহাটটা গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল প্রধান তজিবুর রহমান এবং গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য নাজেমা বিবির বিরুদ্ধে।

অভিযোগ জানানো হয়েছে জেলাশাসক, মহকুমা শাসক এবং ভিডিওকে। অভিযোগ একটি ভুয়ো প্রকল্পের মাধ্যমে এক ব্যক্তির জমিতে ফসল চাষ না করেই এক লক্ষ ছত্রিশ হাজার ৯৫০ টাকা তুলে নেয় স্থানীয় মেম্বার এবং প্রধান। শুধু তাই নয় স্থানীয় মেম্বার নাজেমা বিবি এবং প্রধান তজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে ভুরি ভুরি কাটমানির অভিযোগ তোলেন স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের নাগরাই গ্রামের বাসিন্দারা। যেখানে বাদ যায়নি ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত পরিবার থেকে শুরু করে দুস্থ পরিবার।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বপ্নের প্রকল্প আবাস যোজনা প্রকল্পের মাধ্যমে ঘর পাইয়ে দেওয়ার নাম করে কারো কাছ থেকে ৫০০০ তো কারো কাছ থেকে ১০০০০ টাকা করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য নাজেমা বিবির বিরুদ্ধে। রুমা খাতুন, সালেমা বিবি এদের অভিযোগ তারা টাকা দিয়েছেন ঘর পাবেন বলে। কিন্তু এখনো ঘর পাননি। তৃণমূল মেম্বারের কাছে ঘরের কথা বলতে গেলে তাদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এমন অবস্থায় নাজেহাল গোটা গ্রামের মানুষ। তৃণমূল সরকারের প্রতি তাই তারা অনেহা প্রকাশ করে অন্য দলে যাবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

অন্যদিকে স্থানীয় বাসিন্দা সায়েদ শেখ, অভিযোগ করে বলেন কালিন্দী নদীর চরে তার জমি রয়েছে। সেই জমিতে কোন রকম চাষবাস করা হয়নি। অথচ তার জমিতে ফসল চাষ করা হয়েছে এইরকম একটি প্রকল্প দেখিয়ে স্থানীয় মেম্বার এবং প্রধান এক লক্ষ ছত্রিশ হাজার ৯৫০ টাকা তুলে আত্মসাৎ করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। শুধু তিনি নয় গ্রামের আরো বেশ কয়েকজন বাসিন্দা জমি মালেক সায়েদ সেখের এই অভিযোগে সহমত জানিয়ে অভিযোগ করেছেন। ইতিমধ্যে এই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি নিয়ে মহকুমা শাসক, জেলা শাসক এবং ইংরেজবাজার ভিডিও কে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন গোটা গ্রামের মানুষ। তারা দাবি তুলেছেন অভিযুক্তদের যাতে কঠোরতম শাস্তি হয়। গোটা গ্রামের মানুষ তাদের এই দুর্নীতির শিকার।

আমরা এই অভিযোগ নিয়ে কথা বলার চেষ্টা করেছিলাম প্রধান তজিবুর রহমান এবং গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য নাজেমা বিবির সাথে। তবে এই বিষয়ে ক্যামেরার সামনে আসতে চাননি প্রধান এবং গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য। এই বিষয়ে ইংরেজ বাজার ব্লকের বিডিও সুস্মিতা সুব্বা জানান, অভিযোগ পত্র পেয়েছেন বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: