Nation

‘কেন্দ্রের প্যাকেজ অশ্বডিম্ব, বিগ জিরো’, ভাঁওতা দিচ্ছে মোদী সরকার: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

২০ লাখ কোটির প্যাকেজ আসলে ৪.২ লাখ কোটির..

প্রেরনা দত্তঃ কেন্দ্রের অর্থনৈতিক প্যাকেজের সমালোচনায় সরব মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুরোটাই ভাঁওতা। পুরোটাই বিভ্রান্তিকর। এককথায় অশ্বডিম্ব। একটা বিগ জিরো। কেন্দ্রের ২০ লাখ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঠিক এইভাষাতেই একযোগে আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আশা করেছিলাম মানুষের কষ্টের খানিকটা সুরাহা করবে কেন্দ্র। কিন্তু অর্থমন্ত্রীর ভাষণে তেমন কিছুই খুঁজে পেলাম না। মমতার কথায়, এই দুর্দিনে কেন্দ্রীয় সরকার মানুষকে ধোঁকা ও ভাওতা ছাড়া আর কিছুই দেয়নি। তাঁর আক্ষেপ, করোনা মোকাবিলায় জারি করা লকডাউনের জেরে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প। কিন্তু আর্থিক প্যাকেজে সেই সেক্টরকে চাঙা করার কোনও দিশানির্দেশ নেই। নেই কর্মসংস্থানের কোনও অভিমুখ। এই কারণেই মোদীর আমলে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের সর্বনাশ হল বলেও এদিন বলেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘গতকাল প্রধানমন্ত্রী ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজের কথা বলেছিলেন। তখন ভেবেছিলাম রাজ্যগুলির স্বার্থ রক্ষিত হবে। FRMB আইনের অধীনে ছাড়ের মাত্রা বাড়বে। কিন্তু আজ অর্থমন্ত্রীর ঘোষণার পর বুঝলাম প্রধানমন্ত্রী কাল যা বলেছিলেন তার পুরোটাই ভাঁওতা।’
কেন্দ্রের আর্থিক প্যাকেজের সমালোচনা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘দুর্ভোগের সময় মানুষকে ধোঁকা দেওয়ার চেষ্টা। প্যাকেজে কর্মসংস্থানের কথা বলা হল না। করোনা মোকাবিলায় বরাদ্দ কোথায়। বিভ্রান্তিকর তথ্য দিচ্ছে কেন্দ্র। টাকা নেই, রাজ্যগুলি চালাবে কী করে?’
সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি, ‘যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর ধার না ধেরে রাজ্যের ওপর নিজেদের মত চাপিয়ে দিচ্ছে কেন্দ্র।’

করোনা মোকাবিলায় আত্মনির্ভর অভিযান শীর্ষক বিশেষ আর্থিক প্যাকেজের ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। মোদীর সেই মন্তব্যকেই কটাক্ষ করেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীকে বিঁধে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আত্মনির্ভর তো আগেই হয়েছি। বাংলার ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প চালাতে রাজ্য আগেই ৯০ হাজার কোটি টাকা দিয়েছে। স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলি পিপিই ও মাস্ক তৈরি করছে।’
করোনা পরিস্থিতি শুরুর পর থেকে রাজ্যকে প্রায় ২,৫০০ কোটি টাকা দিয়েছে কেন্দ্র। যদিও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি, এখনো ৫০,০০০ কোটি টাকার বেশি পাওনা রয়েছে কেন্দ্রের কাছে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: