Big Story

“কোভ্যাক্সিন করোনার ৬১৭ রূপকে প্রতিহত করতে পারে” অ্যান্টনি ফৌসি

টিকার একটি ডোজ পরিবারের সদস্যদের সংক্রমণের আশঙ্কা ৫০ শতাংশ কমায়

শর্মিষ্ঠা বিশ্বাস: দেশজুড়ে কোরোনার দ্বিতীয় ঢেউ যেভাবে গণচিতা জ্বালিয়ে চলেছে, মানুষকে আতঙ্কিত করেছে, ‘পাবলিক হেল্থ ইংল্যান্ড’ এর রিসার্চ এবং অ্যান্টনি ফৌসি করা সমীক্ষা দেশবাসীর মনে অনেকটাই সাহস জুগিয়েছে। এ পরিস্থিতিতে টিকাদান একমাত্র সংক্রমণের প্রতিরোধক হতে পারে এমনটাই জানিয়েছেন ফৌসি। তবে এখনো গবেষণা চলছে এই ভ্যাকসিন নিয়ে। কোভিড-১৯ এর টিকা হিসেবে স্বদেশী কোভ্যাকসিন কোরোনার ৬১৭ রকম নতুন স্ট্রেনকে নিরপেক্ষ করতে পারে বলে হোয়াইট হাউসের স্বাস্থ্য উপদেষ্টা এবং আমেরিকার শীর্ষ মহামারী বিশেষজ্ঞ ডাঃ অ্যান্টনি ফৌসির দাবি। আইসিএমআরের গবেষণা বলছে ডবল মিউট্যান্ট স্ট্রেন, ব্রিটেনের স্ট্রেন বি.১.১.৭, ব্রাজিলের স্ট্রেন বি.১.১.২৮ ও দক্ষিণ আফ্রিকার স্ট্রেন বি.১.৩৫১ স্ট্রেনকেও রুখতে সক্ষম।

‘দ্য পাবলিক হেল্থ ইংল্যান্ড’ প্রায় ২৪ হাজার পরিবারের ৫৭ হাজার রোগীর ওপর পরীক্ষা করে দেখে যারা ফাইজার এবং অ্যাস্ট্রেজেনেকার তৈরি টিকা নিয়েছেন তারা টিকা না নেওয়া আক্রান্তদের তুলনায় সুস্থ্যদের ৩৮-৪৯% কম সংক্রমিত করেছেন। অর্থাৎ, মাত্র একটি ডোজ টিকাকরণ মানুষকে তার পরিবার ও আশেপাশের মানুষদের প্রায় ৩৮-৪৯% কম সক্রমিত করবে বা এতটাই সুরক্ষিত করবেন। পিএইচই-এর আগে টিকা সংক্রান্ত গবেষণালব্ধ তথ্যে বলা হয়েছিল, টিকার প্রথম ডোজ নেওয়ার চার সপ্তাহ পর যে কোনও ব্যক্তির থেকে সংক্রমণের সম্ভাবনা ৬৫ শতাংশ কমে যায়। পিএইচআই-এর প্রধান ম্যারি র‌্যামসে বলেছেন, ‘‌টিকা নিতে শুধু সংক্রমণের সংখ্যাই নয়, মৃত্যুহারও কমানো যায়। অর্থাৎ সমস্তরকম নিয়মাবলী মেনে সামাজিক দূরত্ববিধি বজায় রাখা এবং টিকাকরণই হলো কোভিড জয়ের একমাত্র উপায়।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: