Foods

গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা? আইসক্রিমের বদলে খান স্বাস্থ্যকর, সুস্বাদু এই খাবারটি

এই রেসিপিটি যেমন গরমে শরীর ঠাণ্ডা রাখবে তেমন পুষ্টিরও জোগান দেবে

এপ্রিল পড়লো কি পড়লো না, ইতিমধ্যেই গরমে নাজেহাল অবস্থা দক্ষিণবঙ্গে। চড়চড় করে বাড়ছে তাপমাত্রা। সাথে পাল্লা দিয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে অস্বস্তিও। এই বীভৎস গরমে খাওয়াদাওয়ার ক্ষেত্রেও অনেকের ভীষণভাবে অরুচি আসে। কিন্তু সেই চিন্তার অবসান ঘটাতে আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি ফ্রুট কাস্টার্ড-এর রেসিপি। মরসুমি ফল দিয়ে বানা এই ফ্রুট কাস্টার্ড যেমন গরমে শরীর ঠাণ্ডা রাখবে তেমন পুষ্টিরও জোগান দেবে। তাই চিন্তামুক্ত হয়ে বাচ্চা থেকে বড়ো সবাইকেই দিতে পারেন এই ফ্রুট কাস্টার্ড। গরমে হাসফাস করতে করতে আইসক্রিম এর বদলে একবাটি ঠান্ডা ফ্রুট কাস্টার্ড খেলে তা স্বাস্থকরও হয়, মনটাও খুশি হয়ে যায়।

দেখে নিন কীভাবে তৈরি করবেন এই সুস্বাদু ফ্রুট কাস্টার্ড-

উপকরণ:

কাস্টার্ড পাউডার- এক টেবিল স্পুন
গুঁড়ো দুধ- এক টেবিল স্পুন
কনডেনসড মিল্ক- এক টেবিল স্পুন
দুধ- হাফ লিটার
মরশুমি যেকোনও ফল টুকরো করে কাটা(এক্ষেত্রে দু-তিন রকমের ফলও ব্যবহার করতে পারেন আপনি)

প্রণালী-

প্রথমে একটি পরিষ্কার কাচের বাটি নিয়ে তার মধ্যে কাস্টার্ড পাউডার আর গুঁড়ো দুধ দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি একপাশে সরিয়ে রেখে একটি সসপ্যানে আবার হাফ লিটার দুধ এবং এক টেবিল স্পুন কনডেনসড মিল্ক দিয়ে ভাল করে জাল দিয়ে নিন। দীর্ঘ সময় ধরে এই মিশ্রণটি হালকা আঁচে নাড়তে হবে। এবার এই মিশ্রণের মধ্যে কাস্টার্ড পাউডার আর গুঁড়ো দুধের মিশ্রণটি ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর সমস্ত উপাদান ঘন হয়ে আসা পর্যন্ত ভাল করে ফুটিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণ একদম ঘন হয়ে এলে গ্যাস থেকে সসপ্যান নামিয়ে নিতে হবে। এবার মিশ্রণটি ঠান্ডা করে ফ্রিজে ঢুকিয়ে দিন। ঘণ্টা দুই-তিন পরে বের করে ফলের টুকরো মিশিয়ে নিয়ে পরিবেশন করুন ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা ফ্রুট কাস্টার্ড।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: