West Bengal

গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে বাসন্তীতে প্রাণ যায় এক নিরীহের

তৃণমূল যুব ও আদি তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষ পুরানো, আর তার জেরেই রাতভর চলল গুলি বর্ষণ

@ দেবশ্রী : দেশ এই মুহূর্তে একটি কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে এগোচ্ছে। করোনার সঙ্গে মোকাবিলা করতে যুদ্ধক্ষেত্রে নেমেছে আজ সবাই। কিন্তু তার মাঝেও অপরাধ মূলক কাজকর্ম অব্যাহত। সারারাত ধরে চলে গুলিবর্ষণ। এরপর ভোররাতে দক্ষিণ ২৪ পরগণার বাসন্তীতে এক ব্যক্তির মৃত্যুর ঘটনা ঘটে বুধবার। যদিও স্থানীয়দের অভিযোগ, শাসক দলের মূল শাখা ও যুব শাখার মধ্যে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফলই এই খুন।

এক ব্যক্তি মারা যাওয়ারর পাশাপাশি, কমপক্ষে ১২ জন আহত হয়েছেন বলেই খবর। ইতিমধ্যেই বাসন্তী থানার পুলিশ এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে। মৃতের নাম, নবীর আলি মোল্লা। জানা গিয়েছে, রাত থেকেই চলা দু’পক্ষের গণ্ডগোলের মাঝেই ওই ব্যক্তি ভোরবেলা বাড়ি থেকে বেরিয়ে মসজিদে নমাজ পড়তে যাচ্ছিলেন। সেসময় তাঁর শরীর ফুঁড়ে বেরিয়ে যায় গুলি। আহত হয়েছেন দু পক্ষের আরও ১২ জন। বর্তমানে তাঁদের সকলকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তবে শাসক দলের মূল শাখার পক্ষ থেকে এই সংঘর্ষে গোষ্ঠী সংঘর্ষ হিসেবে চিহ্নিত করা হলেও দলের যুব শাখার পক্ষ থেকে দুষ্কৃতীদের তাণ্ডব বলেই আখ্যা দেওয়া হয়েছে। তাঁদের দাবি, বাসন্তীতে আরএসপি’ এলাকার দখল নেওয়ার জন্যই এই গণ্ডগোল বাঁধিয়েছে। এর সঙ্গে দলের মূল শাখা ও যুব শাখার কোনও যোগ নেই।

তবে স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ পুরোটাই তৃণমূল যুব ও আদি তৃণমূলে সংঘর্ষ। যা বাসন্তী-সহ দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে নতুন কিছুই নয়। এর আগেও এমন ঘটনা এখানে ঘটেছে। ফলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। কিন্তু যে ব্যক্তি মারা গিয়েছেন, তিনি একেবারেই নিরীহ ব্যক্তি। যিনি কোনও পক্ষেই ছিলেন না।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: