Big Story

গড়িয়াহাটের অভিজাত পাড়ায় মধু চক্র ফাঁস :গ্রেফতার ৫ মহিলা-সহ ১০

বড় মাথাই এই মধু চক্র চালাত , পিছনে আছে রাজনৈতিক প্রভাবশালী ব্যক্তি। মাঝে মধ্যে আসা যাওয়া আছে অনেকের। করা তারা আদেও সামনে আসবে তারা ?

বুধবার খোদ গড়িয়াহাট থানার কাছেই খোঁজ মিললো মধু চক্র , স্থানীয়দের অভিযোগ অনেক দিন ধরেই চলছে। পাশের গলিতে থামতে থাকে বড় গাড়ী , বিভিন্ন বয়েসের মানুষ এখানে কেন আসে কেউ জানেনা। নিরাপত্তা রক্ষীরা জানে সব বলে অভিযোগ।

মধুচক্রের শহরে পর্দাফাঁস । ২২৮বি রাসবিহারী অ্যাভিনিউর একটি চারতলা বাড়ি থেকে মধুচক্রে জড়িত থাকার অভিযোগে ৫ মহিলা সহ মোট ১০ জনকে গ্রেফতার করে গড়িয়াহাট থানার পুলিশ বুধবার সন্ধে নাগাদ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ধৃতদের মধ্যে একজন ম্যানেজারও রয়েছে।, ওই বাড়িটির তিনতলা এবং চারতলা জুড়ে মধুচক্র চলত।ছাদে চলতো পার্টি , অনেক রাত পর্যন্ত লোকের আসা যাওয়া। বুধবার সকালেই সোর্স মারফত খবর আসে থানায় , তার পর আর দেরি করেনি পুলিশ। ফাঁদ পাতে এদিন সন্ধে নাগাদ , এরপরই সেখানে হানা দেন তারা। সেখান থেকে হাতে-নাতে ওই দশজনকে গ্রেফতার করেন তাঁরা।

ওই বাড়ির অন্য বাসিন্দারা একদম মুখ খুলতে রাজি নন , স্থানীয় বাসিন্দা ও আসে পাশের দোকানদাররা বলেন “এই গড়িয়াহাটের অনেক জায়গায় এই নোংরা কারবার চলে সবাই সব জানে তবুও সবাই চুপ।” হকার দের একটা বড় অংশের দাবি ,” আমাদের চোখের সামনেই কত কিছু ঘটে আমরা কি বলবো ,ওরা যে বড্ডবেশি বড় লোক , ইংরেজিতে কথা বলে , শিক্ষিত আমরা তো হকার রাস্তার হকার। কে জানে না বলুন , সামনেই পুলিশ থানা , আসে পাশে অন্তত নেতা মন্ত্রী সরকারি অফিসার সবার বাস কেও জানেনা অথচ এই সব হয় ”

ওই বাড়িটিতে মধুচক্র চলত কতদিন ধরে ? এর মূল মাথাই বা কে? সে বিষয় তদন্ত শুরু করেছে গড়িয়াহাট থানার পুলিশ। অপরদিকে, এদিন রাতেই ধৃতদের মেডিকেল করানোর জন্য হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার তাদের প্রত্যেককে কোর্টে তোলা হবে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: