Entertainment

চলে গেলেন কুলমিত মাক্কার, শোক প্রকাশ করেছেন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ত্বরা

তিন দশকেরও বেশি সময়ে বিনোদন জগতের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন কুলমিত

প্রেরনা দত্তঃ ইরফান খানের মৃত্যুর ধাক্কা সামলাতে না সামলাতেই মৃত্যু হয় কিংবদন্তী অভিনেতা ঋষির। এর পর শুক্রবার সকালে ফের মৃত্যু সংবাদ! প্রয়াত হলেন ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন প্রযোজক গিল্ডের সিইও কুলমিত মাক্কার।লকডাউনের জেরে হিমাচলপ্রদেশের এক ধর্মশালায় আটকে পড়েছিলেন কুলমিত। সেখানেই মৃ্ত্যু হয় তাঁর। সূত্রের খবর, হৃদরোগের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ৬০ বছর।

টুইট বার্তায় অশোক জানান, জেনে খুব দুঃখিত হলাম,আমাদের প্রিয় বন্ধু সহকর্মী কুলমিত মালাকার আর নেই। হিমাচল প্রদেশের ধর্মশালায় ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন প্রোডিউসার্স গিল্ডের সিইও প্রয়াত হয়েছেন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছে। তোমার কথা খুব মনে পড়ছে।পরিবারের প্রতি সমবেদনা’।
তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রযোজক করণ জোহর, হনসাল মেহেতা, ফারহান আখতার, সঞ্জয় সুরি-সহ বলিউডের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ত্বরা।কুলমিতের মৃত্যুসংবাদে ভেঙে পড়েছেন করন জোহরও। নিজের ট্যুইটার থেকে কুলমিতের ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘কুলমিত তুমি অসাধারণ একজন মানুষ ছিলে, প্রোডিউসার্স গিল্ডে তুমিই ছিলে আমাদের সবার শক্তির উৎস…ইন্ডাস্ট্রির ভালোর জন্য তুমি সারাক্ষণ চিন্তা করতে,সবটা উজাড় করে দিতে..খুব তাড়াতাড়ি চলে গেলে…তোমাকে আমাদের বড্ড মনে পড়বে। ভালো থেকো বন্ধু’।

তিন দশকেরও বেশি সময়ে বিনোদন জগতের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন কুলমিত। সারেগামা, রিলায়েন্স এন্টারটেইনমেন্ট, বিগ মিউজিক অ্যান্ড হোম এন্টারটেইনমেন্টের সিইও ছিলেন কুলমিত। এছাড়াও ২০১০ সালে গিল্ডের সিইও পদ গ্রহণের আগে শ্রেয়া এন্টারটেইনমেন্টের সভাপতি ও সিইও ছিলেন তিনি। সমিতির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি। বহু বছর ধরে অক্লান্ত পরিশ্রমে টেলিভিশন এবং ফিল্ম সংস্থাকে উন্নতির শিখরে পৌঁছে দিয়েছিলেন কুলমিত। বলিউড হাঙ্গামা সূত্রে খবর, লকডাউনে ইন্ডাস্ট্রি দিনমজুরদের জন্য একটি ট্রাস্ট তৈরির উদ্যোগ নিয়েছিলেন মাক্কার, অনেকদূর কাজও এগিয়েছিল কিন্তু সেই কাজ শেষ না করেই চলে গেলেন গিল্ড সিইও।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: