Health

চিকিৎসার গাফিলতিতে মর্মান্তিক মৃত্যু শিশুর

এই ভাবেই ফুরিয়ে যায় অঙ্কুশেরা কোটি কোটি টাকার সরকারী প্রচারের মধ্যে

চিকিৎসার গাফিলাততে এক শিশুর মৃত্যু হল। মৃত শিশুর নাম অঙ্কুশ দাস। দুই বছর বয়স। বনগাঁ প্রতাপ গড় দাস পাড়ার বাসিন্দা। ঘটনাট ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগণার বনগাঁ জীবন রতন ধর মহকুমা হাসপাতে।

পরিবার সূত্রে জানাগিয়েছে, গতকাল দুপুর বারোটা নাগাত অ্যালার্জি জনিত সমস্যা নিয়ে বনগাঁ মহকুমা হাসপাতে ভর্তি হয়। ডাক্তার অসুধ দিলেও তার শারীরিক অবনতি হতে থাকে। রাতের দিকে তার জ্বর আসে। অভিযোগ সেই সময় ডাক্তার নার্সদের ডাকলে তারা কেউ শিশুটির কাছে আসেনি। মাথায় জল পট্টি দেওয়ার পরামর্ষ দেয় তারা। পরে আজ সকাল সাতটা নাগাত অঙ্কুশের মৃত্যু হয়। পরিবারের অভিযোগ ডাক্তরেরা সঠিক সময় বাচ্চাটিকে দেখলে এমন ঘটনা ঘটত না। হয়তো তাকে বাঁচানো যেত। পাশাপাশি তারা জানান অবস্থার অবনতি হলে তা পরিবারের লোকেদের জানানো হয়নি। অন্যত্র নিয়েও যেতেও বলেনি। এই ঘটনায় নার্স, আয়াদের দৌরত্ব নিয়ে প্রশ্ন তোলে পরিবারের লোকেরা।
প্রসংত, এর আগেও রুগীর মৃত্যুতে হাসপাতালের আয়াদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। তাদের দৌরত্বরের কথা সামনে এসেছে।

এই বিষয়ে হাসপাল সুপার ডঃ শঙ্কর কুমার মহতো বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনার তদত্ব করে দেখা হবে। যদি কেউ দোষী প্রমাণিত হত তাহলে তাদের বিরুদ্ধ শাস্তি মুলক ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।প্রসঙ্গত বলাযেতে পারে এই ভাবেই ফুরিয়ে যায় অঙ্কুশেরা কোটি কোটি টাকার সরকারী প্রচারের মধ্যে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: