Big Story

জুনিয়র ডাক্তারদের যুক্তিতে সিনিয়ররা পিছিয়ে গেলেন , গেলেন না নবান্নে

আন্দোলনের দিক বদলিয়ে যাচ্ছে , হতে পারে দেশ জুড়ে গণবিক্ষোভ। মমতা সরকার বিপদে

রাজ্যের প্রবীণ চিকিৎসকদের মাধ্যমে বকলমে সমঝোতার পথে রাজ্য সরকার , এটা বুঝতে পেরে যায় জুনিয়র ডাক্তাররা। জুনিয়র ডাক্তাররা বলেন ওই সরকারি প্রতিশ্রুতি অনেক বার এসেছে কিন্তু কাজের কাজ কিছু হয় নি , তাই এবার আর বিলম্ব করা যাবে না। আমাদের জীবন ও জীবিকা দুটোই সুরক্ষিত করতে হবে।

এদিকে আন্দোলনের রফাসূত্র পেতে দফায় দফায় বৈঠক জুনিয়র চিকিৎসকদের সাথে । অ্যাকাডেমিক বিল্ডিং-এ যৌথমঞ্চের বৈঠকের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ইতিমধ্যেই NRS-এর আন্দোলনকারীরা। বৈঠক পিছিয়ে গিয়েছে তবে বেশ কিছু কারণে। আবারো আলোচনা চালাবে IMA কিন্তু অচলাবস্থা কাটাটে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষদের সঙ্গে বৈঠকে প্রতিনিধি দল। ছিলেন সর্বভারতীয় সভাপতি শান্তনু সেন। জুনিয়র ডাক্তারদের দাবি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে এই বৈঠকে।

আন্দোলন কারীদের সাথে বৈঠক হয়েছে , এরপরই সিদ্ধান্ত হয় নবান্নে বৈঠকে জুনিয়র ডাক্তাররা যাবে না। প্রসঙ্গ, চিকিৎসক আন্দোলনে তোলপাড় গোটা দেশ। কার্যত ধস নেমেছে চিকিৎসা পরিষেবায়।

রাজ্য প্রসাশনের ওপর তীব্র ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন প্রত্যেকেই।কল্যাণী নিয়ে এখনো পর্য্যন্ত প্রায় ৫০০ জন ডাক্তার ইস্তফা দিয়েছেন। গন ইস্তফার সাক্ষী থেকেছে গোটা রাজ্য। বিশ্ব বাংলার নিন্দা অন্য রাজ্যে , অন্যদিকে জট কাটাতে উদ্যোগী ওপর মহল। দফায় দফায় চলছে বৈঠক। কী হবে শেষ অবধি! এখন সময়ের অপেক্ষা।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর তরফ থেকে এখনো NRS হাসপাতালে যাবেন জিনা তা পরিষ্কার করে জানানো হয়নি।

৫ সিনিয়র ডাক্তারও জুনিয়রদের পাশে থেকে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছেন না , জিবি-র সঙ্গে বঠকের পর জুনিয়র ডাক্তাররাও জানিয়ে দেন, মুখ্যমন্ত্রী এনআরএস-এ এলে তবেই আলোচনা হবে।

জিবি-র সঙ্গে বঠকের পর জুনিয়র ডাক্তাররাও জানিয়ে দেন, মুখ্যমন্ত্রী এনআরএস-এ এলে তবেই আলোচনা হবে। নবান্নে যাবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন তাঁরা। তাঁদের দাবি, চিকিত্সকদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে হবে। নবান্নে কোনও প্রতিনিধিও যাচ্ছেন না। ফের সাংবাদিকদের সামনে বললেন, “আমাদের ওপর আক্রমণের ঘটনা নিন্দনীয়। কোনও প্রতিনিধি নবান্নে যাচ্ছে না।”

প্রসঙ্গত, জুনিয়র ডাক্তারদের আলোচনার জন্য আজকের নবান্নে ডেকে পাঠান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।গতকাল রাতে মুখ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিকর্তা প্রদীপ মিত্র পৌঁছন এনআরএসে। কিন্তু তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন আন্দোলনকারীরা। তাঁদের স্পষ্ট দাবি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই আসতে হবে তাঁদের ক্যাম্পাসে। নবান্ন থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, শনিবার বিকেল পাঁচটায় জুনিয়র ডাক্তারদের জন্য অপেক্ষা করবেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু অনড় আন্দোলনরত হবু চিকিত্সকরা। এবার জুনিয়র ডাক্তারদের পাশে থেকেই নবান্নে গেলেন না সিনিয়র ডাক্তাররাও। বিপদে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: