What Do You Think

জেএনইউ এর উত্তপ্ত পরিবেশে, চাঞ্চল্যকর মন্তব্য দিলীপ ঘোষের।

বাম সংগঠন এর বিরুদ্ধে এবার তোপ দাগলেন রাজ্য সভাপতি, ছাড়েননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও।

@ দেবশ্রী : জেএনইউ এ ঘটে যাওয়া হামলা নিয়ে সারা দেশ উত্তাল। এই সময় বিতর্কিত মন্তব্য করলেন, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘শিক্ষাঙ্গনে মারামারি কমিউনিস্টরাই আমদানি করেছে…এখন হিসেব বরাবর হচ্ছে’। এই হামলার প্রসঙ্গে, সোমবার বিজেপি সাংসদ বলেন, ”এদেশে কমিউনিস্টদের মারা শুরু হয়েছে। মনে হয়, এটা তাদের পাওনা আছে, কারণ যা ব্যবহার করেছে। এটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। হিসেব বরাবর হচ্ছে”। এমন উত্তপ্তকর পরিস্থিতিতে, এইরূপ মন্তব্য চারিদিকে তুলেছে সমালোচনার ঝড়।

জেএনইউ-তে হামলার ঘটনায় এদিন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ”কে কাকে মেরেছে আমরা কেউই বলতে পারব না। এটা সম্পূর্ণভাবে ছাত্রদের ব্যাপার, বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপার, প্রশাসনের ব্যাপার। ওখানে কাদের আখড়া? মারপিট হলে অস্বাভাবিক কিছু নয়। শিক্ষাঙ্গন কোনো মারামারির জায়গা নয়। কে আমদানি করেছে এসব? কমিউনিস্টরা আমদানি করেছে। এসএফআই-কংগ্রেস করেছে। ত্রিপুরা, বাংলা, কেরালা ছাড়া আর তো কোথাও এমনটা হয় না। এদেশে কমিউনিস্টদের মারা শুরু হয়েছে। মনে হয়, এটা তাদের পাওনা আছে, কারণ যা ব্যবহার করেছে, এটা কোনো অস্বাভাবিক কিছু নয়। এখন সব হিসাব বরাবর হচ্ছে”।

অন্যদিকে, জেএনইউ-এর এই ঘটনাকে ‘ফ্যাসিস্ট সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ বলে বর্ণনা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই প্রসঙ্গে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে দুষে দিলীপ ঘোষ বলেন, ”যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে আমাদের মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে মারা হল, চুলের মুঠি ধরে টানা হল। তখন মমতার বিবেক জাগেনি? রাজ্যপালকে গো ব্যাক স্লোগান দিচ্ছে, তখন নিন্দা জানাননি। কে কাকে মেরেছে উনি-আমি কেউই বলতে পারব না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেবল মায়া কান্না কাঁদছেন। যাঁরা দেশবিরোধী, তাঁদের জন্য ওঁর হৃদয় কাঁপে। ওঁর উদ্দেশ্য নিয়ে সন্দেহ হয়”।

এমন উত্তেজনাকর পরিবেশে, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের এমন মন্তব্য চারিদিকে তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। এখন দেখার বিষয় এই মন্তব্য কোন দিকে মোড় নেয়।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: