Nation

জ্যান্ত পুড়িয়ে দেওয়ার হুমকি, কংগ্রেস বিধায়কের। পুলিশের দ্বারস্থ প্রজ্ঞা ঠাকুর।

প্রথমে রোষের মুখে পড়েছিলেন প্রজ্ঞা ঠাকুর, এবার তার রোষের মুখে বিধায়ক।

@ দেবশ্রী : সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুরের রোষের মুখে এক কংগ্রেস বিধায়ক। একটি বিকতর্কিত মন্তব্য করাতেই এই রোষ। বেশ কিছুদিন আগে, নাথুরাম গডসেকে দেশপ্রেমিক আখ্যা দিয়ে একটি মন্তব্য করেছিলেন, প্রজ্ঞা ঠাকুর। আর সেই মন্তব্যের কারণেই, তাঁকে জ্যান্ত জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন কংগ্রেস বিধায়ক। আর অভিযুক্ত ওই বিধায়কের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করার জন্য শনিবার রাতে মধ্যপ্রদেশ পুলিশের দ্বারস্থ হন প্রজ্ঞা ঠাকুর।

উর্দ্ধতন পুলিশ অফিসার জানান, মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে দেশপ্রেমিক বলায় কংগ্রেস বিধায়কের রোষের মুখে পড়েছিলেন প্রজ্ঞা ঠাকুর। এই বিষয়ে অভিযুক্ত বিধায়কের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করতে শনিবার রাতে মধ্যপ্রদেশের রাজধানী শহর কমলা নেহেরু থানায় হাজির হয়েছিলেন প্রজ্ঞা ঠাকুর।
প্রসঙ্গত, গত ২৭ নভেম্বর লোকসভায় দাঁড়িয়ে প্রজ্ঞা ঠাকুর নাথুরাম গডসেকে দেশপ্রেমিক বলেছিলেন। প্রজ্ঞার এই মন্তব্য ঘিরে সেদিন উত্তাল হয়ে উঠেছিল সংসদ। অবশ্য এমন মন্তব্য করার জন্য পরে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছিলেন তিনি।

ক্ষমা চাওয়ার পরেও কিন্তু বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না এই সাংসদের। সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশের বায়োয়ারার কংগ্রেস বিধায়ক গোবর্ধন ডাঙ্গি ভোপালের সাংসদের এই মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেন। তিনি জানান, প্রজ্ঞা এখানে আসলে শুধু তার কুশপুতুলকে দাহ করা হবে না। তাঁকেও জ্যান্ত জ্বালিয়ে দেওয়া হবে।

যদিও এই রকম একটি মন্তব্য করার জন্য পরে ক্ষমাও চেয়ে নেন কংগ্রেস বিধায়ক। এই বিষয়ে কমলা নেহেরু থানার পুলিশ সুপারিটেন্ডেণ্ট সঞ্জয় শাহ জানান, প্রজ্ঞা ঠাকুরের কাছ থেকে তাঁরা একটি অভিযোগ পেয়েছে। বর্তমানে ওই কংগ্রেস বিধায়কের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: