Nation

তাজের শহরের এ কি অবস্থা ?

আগ্রার বেহাল চিত্র

পল্লবী : সাস্থদপ্তর গুলির যদি এরূপ চিত্র হয় তবে কি হবে দেশের হাল ? প্রথমত, কোনও কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে নেই অত্যাবশকীয় পণ্যের জোগান। দ্বিতীয়ত, সামাজিক দূরত্ব তো উঠেই গেছে। এমনকী, কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রাখা করোনা সন্দেহভাজনদের শারীরিক পরীক্ষা করা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ। এই ছবি হলো যোগী প্রশাসনের আগ্রার বিভিন্ন কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলির এই বিষয় নিয়ে যত শীঘ্রই সম্ভব পদক্ষেপ নেবে বলে জানিয়েছে জেলাশাসক প্রভু এন সিং। উত্তরপ্রদেশে ক্রমাগত আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। তবে সেই রাজ্যের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি আগ্রার।

দেশের জনপ্রিয় পর্যটনস্থল আগ্রায় লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। অথচ সেখানকার অব্যবস্থার ছবি বারবার সামনে আসছে। কখনও রাস্তায় লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকছেন করোনা আক্রান্ত রোগীরা। আবার কখনও কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের ভিতরকার পরিস্থিতির ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। মজার বিষয় হল, আগ্রার ‘কনটেইনমেন্ট’ মডেলের প্রশংসা করেছে কেন্দ্র সরকার। সোস্যাল মিডিয়ায় দুটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। প্রথম ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে, প্রোটেক্টিভ গিয়ার পরা এক ব্যক্তি দরজার বাইরে থেকে বিস্কুটের প্যাকেট দিচ্ছেন। আর সামাজিক দূরত্বকে না মেনেই গেটের ভিতরে জড়ো হয়েছেন কোয়ারেন্টাইনে থাকা অনেকেই। তাঁরা দরজার ওপার থেকে হাত বাড়িয়ে সেই বিস্কুট সংগ্রহ করছেন।

এমনকী, দরজার বাইরে মিনারেল ওয়াটারের বোতল রেখে যাওয়া হচ্ছে। সেগুলি সংগ্রহ করতে একইভাবে ভিড় জমাচ্ছেন কোয়ারেন্টাইন থাকা অনেকে। ভাইরাল হওয়া আরও একটি ভিডিওতে এক মহিলাকে অভিযোগ করতে শোনা গিয়েছে। তিনি বলছেন, ‘কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকা সকলের নির্দিষ্ট সময় অন্তর শারীরিক পরীক্ষা করার কথা ছিল। কিন্তু আদপে তা হচ্ছে না। খাবার, জলের ন্যূনতম ব্যবস্থা করা হচ্ছে না।’ ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, গেটের বাইরে একটি টেবিলের উপর চা, বিস্কুট রাখা থাকছে। তা নিতেও হুড়োহুড়ি পড়ে যাচ্ছে। ঘটনাপ্রসঙ্গে আগ্রার জেলাশাসক প্রভু এন সিং বলেন, ‘আমি ওই এলাকাগুলিতে গিয়েছিলাম। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে এসেছি। আধিকারিকদের গোটা বিষয় নজর রাখতে বলেছি। যা যা অভিযোগ রয়েছে সেগুলিও মিটিয়ে ফেলতে নির্দেশ দিয়েছি।’ এভাবে পরিস্থিতি বহাল থাকলে মৃত্যুপুরী অবসম্ভাবী।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: