Nation

দক্ষিণ কোরিয়ায় খুলছে স্কুল, শিথিল হচ্ছে সামাজিক দূরত্ব

লকডাউনে সুফল পেয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া, তাই সবকিছু স্বাভাবিক করতে চায় প্রশাসন

@ দেবশ্রী : গত আড়াই মাস ধরে কার্যত করোনার জেরে স্তব্ধ হয়েছিল সারা বিশ্ব। করোনার সংক্রমণ রুখতে চলছিল লকডাউন। সেই সঙ্গে মানা হচ্ছিল সামাজিক দূরত্ব বিধি। এইভাবেই দ্রুত সাফল্য পেতে শুরু করে দক্ষিণ কোরিয়া। বিশ্বজুড়ে দক্ষিণ কোরিয়া মডেলে করোনা রোখার প্রসঙ্গ বারবার সামনে আসছিল। সেই দক্ষিণ কোরিয়ায় এবার খুলে গেল স্কুল। ছাত্রছাত্রীরা অবশ্য ক্লাস শুরু করবে ১৩ মে থেকে। তার আগে স্কুলগুলিতে সব ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকদের জন্য মাস্কের বন্দোবস্ত ও অন্যান্য স্যানিটাইজেশনের কাজ শুরু হয়েছে।

শুধু স্কুল নয়, দক্ষিণ কোরিয়া সরকার সেখানকার মিউজিয়ামও খুলে দিয়েছে। খুলে যাচ্ছে জিম, নাইট ক্লাব। ক্রমশ স্বাভাবিক জীবনে মানুষকে ফেরাতে সবরকম চেষ্টা চালাচ্ছে প্রশাসন। আড়াই মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে সবকিছু সেখানে খুলতে শুরু করল। এমনকি সামাজিক দূরত্ববিধিও শিথিল করেছে সরকার। নাইট ক্লাবের মত জায়গা খোলা মানেই সামাজিক দূরত্ব কমা। স্কুলেও ছোট ছোট পড়ুয়ারা এই দূরত্ব কতটা রাখতে পারবে তা নিয়ে সন্দেহ থাকছে। সেসব মাথায় রেখেই খুলে যাচ্ছে সবকিছু।

দক্ষিণ কোরিয়া প্রশাসন সামাজিক দূরত্ববিধি শিথিল করার পাশাপাশি কিছু গাইডলাইন ঘোষণা করেছে। জানিয়ে দেওয়া হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার মানুষকে রাস্তায় বার হলে ২ জনের মধ্যে ১ হাতের দূরত্ব কমপক্ষে রেখে চলতে হবে। মুখে মাস্ক অবশ্যই থাকতে হবে। যদি কারও জ্বর হয় বা তিনি অসুস্থ হন তাহলে তাঁকে ৩ থেকে ৪ দিন বাড়িতেই থাকতে হবে। নিয়মিত হাত ধুতে হবে। কাশি আসলে কনুইয়ের কাছে হাত ভাঁজ করে সেখানে মুখ গুঁজে কাশতে হবে। সব জায়গা নিয়মিত পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। তাহলেই আরও দ্রুত এই করোনা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: