Analysis

দীর্ঘ লকডাউন বহু মানুষকে গরীবীর দিকে ঠেলে দেবে, বললেন প্রাক্তন আরবিআই গভর্নর

তাঁর মতে, ‘বিশ্লেষকরা মনে করেন এবছর ভারতের প্রকৃতই নেতিবাচক বৃদ্ধি হবে বা সামান্য বৃদ্ধি হবে। দীর্ঘমেয়াদি লকডাউন বহু মানুষকে আরও দারিদ্র্যতার দিকে ঠেলে দেবে’।

প্রেরনা দত্তঃ দীর্ঘদিনের লকডাউন অসংখ্য মানুষকে অস্তিত্বের সঙ্কটে ঠেলে দিতে পারে। আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রাক্তন গভর্নর দুভুরি সুব্বা রাও। দীর্ঘমেয়াদি লকডাউন চলার ফলে, মানুষের পরিস্থিতি জীবনধারণের বাইরে চলে যাবে, রবিবার এমনটাই বললেন তিনি। পাশাপাশি তাঁর আশা, ভারতে করোনা (COVID-19) পরিস্থিতি শেষ হলে, “ভি কার্ভ” পুনরুদ্ধার হতে পারে। মন্থন ফাউন্ডেশনের একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রাক্তন গর্ভনর (RBI Governor), সেখানেই এমন মন্তব্য করেন তিনি।

করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ দেশজুড়ে উদ্বেগ আরও বাড়াচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে লকডাউন আরও বাড়ানোরও ভাবনা তৈরি হচ্ছে বিভিন্ন মহলে। তবে লকডাউন আরও বাড়ানো হলে দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি আরও জটিল হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রাক্তন গভর্নর ডি সুব্বারাও। এর ফলে গরিব মানুষ আরও গরিব হবেন বলে তাঁর আশঙ্কা।

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রাক্তন গর্ভনর বলেন, “কারণ, বেশিরভাগ বিশ্লেষকই মনে করেন যে, এবছর ভারতের প্রকৃতই নেতিবাচক বৃদ্ধি হবে বা সামান্য বৃদ্ধি হবে। আমাদের অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে, এই পরিস্থিতি তৈরির দুমাস আগে, আমাদের বৃদ্ধির গতি ধীর ছিল। এখন এটা পুরোপুরি থমকে গিয়েছে। গত বছর বৃদ্ধির হার ছিল ৫ শতাংশ। ভাবুন, গত বছরের বৃদ্ধির হার ৫ শতাংশ এবং আমরা ঋণাত্মক বৃদ্ধি বা শূন্য বৃদ্ধির দিকে যাচ্ছি এবছর, ৫ শতাংশ বৃদ্ধি হ্রাস পেয়ে”।

তিনি আরও বলেছেন, এটা সত্যি যে বেশিরভাগ দেশের তুলনায় ভারত এই সঙ্কট ভালভাবে সামলাবে। কিন্তু সেটা কোনও সান্ত্বনা হতে পারে না কারণ আমাদের দেশ অত্যন্ত দরিদ্র, লকডাউন দ্রুত প্রত্যাহার না করা হলে অসংখ্য মানুষ অস্তিত্বের সঙ্কটে পড়বেন। আইএমএফ বলেছে এ বছর ভারতের আর্থিক বৃদ্ধি হতে পারে ১.৯ শতাংশের মত। সুব্বারাওয়ের বক্তব্য, এই হিসেব পুরনো, এবার জিডিপির নেগেটিভে নেমে যাওয়ার পুরোদস্তুর সম্ভাবনা। জীবন বনাম জীবনধারণের এই বিতর্ক ভারতে খুব বেশি দিন থাকবে না বলে তাঁর ধারণা।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: