Nation

দেশের নাম ‘ইন্ডিয়া’ পাল্টে ‘ভারত’ করার আবেদন, শুনানি ২রা জুন

একই দেশের দুটো নাম! নাম নিয়ে এবার তরজা হবে কোর্টে।

প্রেরনা দত্তঃ দেশ একটা। কিন্তু নাম দুটো। ইন্ডিয়া। ভারত। এবার কি তবে ইন্ডিয়া থেকে শুধু হবে ভারত! তেমনই সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। এই নিয়ে এবার তরজা হবে সুপ্রিম কোর্টে।

শুক্রবার জাস্টিস এএস বোপান্না ও জাস্টিস ঋষিকেশ রায়ের বেঞ্চ প্রধান বিচারপতি জাস্টিস এসএ বোবদের অনুপস্থিতির কারণে আগামী ২রা জুন পর্যন্ত শুনানি স্থগিত রাখে। সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে দেশের নাম হিসেবে ভারত বা হিন্দুস্তান প্রাধান্য পাবে। মামলা দায়ের করার পিছনে যুক্তি হিসেবে বলা হয়েছে দেশের একটাই নাম মানুষের মধ্যে জাতীয়তাবোধ গড়ে তুলতে সাহায্য করবে। এমনকী ভারতীয় হিসাবেও গর্ববোধ করবে দেশবাসী। আর তাই কেন্দ্রের কাছে হলফনামা চেয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

সংবিধানের ধারা অনুচ্ছেদের উল্লেখ করে আবেদন করা হয়েছে, দুটি নামের জায়গায় একটি হলে জাতীয়তাবোধ বাড়বে। তবে এক্ষেত্রে সংবিধানের সংশোধন করতে হবে। আর সেই জন্য কেন্দ্রকে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে। ইংরেজিতে ইন্ডিয়া। আবার ভারত। একই দেশের দুটি নামেই এত বছর ধরে চলে আসছে। কিন্তু ২রা জুনের পর দেশের নাম হতে পারে একটি। সেক্ষেত্রে ভারত নামটিই এগিয়ে। হিন্দুস্তানের থেকে ভারত নামটির পাল্লা ভারি।

দিল্লির জনৈক ব্যক্তি মামলাটি দায়ের করেছেন। সেই মামলাকারীর দাবি, ভারত নামটির মধ্যে লুকিয়ে রয়েছে নস্টালজিয়া। ভারত নামটির মধ্যে দিয়ে বহু পুরনো ইতিহাস মানুষের স্মরণে আসবে। ব্রিটিশ শাসন এবং ঔপনিবেশকতার যে অতীত ভারতের ইন্ডিয়া নামের সঙ্গে জড়িয়ে তাঁকে বাদ দিয়ে জাতীয়তাবাদকে প্রাধান্য দিতেই এই প্রস্তাব করেন ওই ব্যক্তি। তিনি বলেন, “ইংরেজি নামটি মুছে ফেলা হলে আমাদের নিজস্ব জাতীয়তাবাদের একটা স্থান পাবে। এটা আগামী প্রজন্মের জন্য গর্বের। ইন্ডিয়া নামের পরিবর্তে ভারত শব্দ ব্রিটিশ শাসনের বিরুদ্ধে আমাদের পূর্বপুরুষদের লড়াই করে অর্জিত স্বাধীনতাকে মর্যাদা দেবে।”

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: