Nation

দেশের বিভিন্ন স্থানেই মদের জন্য হাজার হাজার মানুষের লাইন

ভিড় এবং ধাক্কাধাক্কি থামাতে কলকাতার কালীঘাট, চাঁদনি চক, পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দকুমারে পুলিশ লাঠি নিয়ে তেড়ে যায়।

প্রেরনা দত্তঃ দেশজুড়ে শুরু হয়েছে লকডাউন ৩। করোনাভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। এই সিদ্ধান্তের ফলে আগামী আরও দুই সপ্তাহ লকডাউন চলবে। যদিও এবারের লকডাউনে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে। দেশের বিভিন্ন অংশে গতকাল খুলেছে মদের দোকান। তার জেরে দিল্লি, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্ণাটক, ছত্তীসগঢ় সহ একাধিক রাজ্যে মদের দোকানের সামনে লম্বা লাইন।

কেউ রবিবার রাত থেকেই দোকানের সামনে। কেউ ইট পেতে লাইন রেখেছেন। জলপাইগুড়িতে তো অনেকে বৃষ্টিতে ভিজেও লাইন ছাড়েননি। সোমবার বেলা ৩টের সময় যখন মদের দোকান খুলল, রাজ্যের বহু জায়গায় লাইন ছড়িয়ে গিয়েছে প্রায় এক কিলোমিটার, দূরত্ববিধি শিকেয় তুলেই। লাইনে পাঁচ জনের বেশি দাঁড়ানো যাবে না, এ কথা মানে কে?

ভিড় এবং ধাক্কাধাক্কি থামাতে কলকাতার কালীঘাট, চাঁদনি চক, পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দকুমারে পুলিশ লাঠি নিয়ে তেড়ে যায়। গোলমাল পাকানোর অভিযোগে পুলিশ নন্দকুমারে দু’জনকে গ্রেফতারও করেছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড়, বসিরহাটেও সামান্য বিশৃঙ্খলা হয়। দিল্লিতেও মদের দোকানের সামনে ছিলো ঠাসাঠাসি ভিড় এবং বিশাল লাইন। কোনও কোনও জায়গায় দোকানের তিনটি কাউন্টার থেকে মদ বিক্রি করা হচ্ছিলো। প্রতিটি কাউন্টার থেকে লাইন এঁকেবেঁকে চলে গিয়েছিল কয়েক কিলোমিটার। একজনের গায়ের ওপরে অন্যজন দাঁড়িয়ে।

রাজ্যের আবগারি কমিশনার উমাশঙ্কর সোমবারেই একটি নির্দেশিকায় বেলা ১২টা থেকে বেশ কয়েকটি শর্তসাপেক্ষে মদ বিক্রির অনুমতি দেন। তার পরে অধিকাংশ জায়গাতেই মদ বিক্রি শুরু হয়েছে বেলা ৩টে থেকে। নির্দেশ অনুযায়ী, এক বার এক জন শুধু দু’টো বোতলই কিনতে পারবেন। কলকাতায় দেখা যায়, অনেকে এক বার বোতল কিনে কাছের ফলের দোকান থেকে কালো পলিপ্যাক কিনে নিচ্ছেন, তার পর তাতে বোতল মুড়ে কারও হাত দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দিয়ে আবার লাইনে দাঁড়িয়ে পড়ছেন। দোকান বন্ধ হয় সন্ধে ৭টার মধ্যে।

মদের দোকান খোলার বিরুদ্ধে পূর্ব মেদিনীপুরের ময়না বাজারে বিক্ষোভ দেখান মহিলারা। তাঁদের অভিযোগ, লকডাউনে কাজ হারিয়ে এমনিতেই অনেক পরিবার সমস্যায় রয়েছে। এর মধ্যে মদের দোকান খুললে বহু পরিবারে অশান্তি চরমে উঠবে, মত্তদের উপদ্রবও বাড়বে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: