Nation

দোকান থেকে ইলেকট্রিক সামগ্রী কেনার পর করোনা হলেই মিলবে ৫০ হাজার ক্যাশব্যাক

অদ্ভুত অফার কেরলের এক দোকানের, দায়ের হয় তার বিরুদ্ধে মামলা

দেবশ্রী কয়াল : করোনার জেরে বহু ক্ষেত্রে পড়েছে প্রভাব। অর্থনীতির হাল হয়ে রয়েছে কিন্তু বেহাল। আর এই সময় কেরলের কোয়াট্টাম জেলার একটি ইলেকট্রনিক সামগ্রীর দোকান দিল এক ভারী অদ্ভুত অফার। যার জেরে দোকানে উপচে পড়ল ভিড়। অফারে বলা হল, ইলেট্রনিকের দোকান থেকে এসি, ফ্রিজ, ওয়াশিং মেশিন, যাই কিনুন না কেন, তা কেনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আপনি করোনা আক্রান্ত হলেই পেয়ে যেতে পারেন ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত পাওয়া যাবে ক্যাশব্যাক।

এই বিষয়ে দোকান কর্তৃপক্ষের দাবি, লকডাউনের পর দীর্ঘদিন দোকান বন্ধ হয়ে থাকার কারণে ক্রেতা আকর্ষণ করতেই এই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু করোনা সংক্রমণকে কেন্দ্র করে এমন উদ্ভট অফার দেওয়া নিয়ে বিজ্ঞাপন দেওয়ার পর থেকেই শুরু হয়ে যায় বিতর্ক। দোকানের উপর মানুষের ভিড় পড়ে উপচে।

একটি জাতীয় সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে, স্বাধীনতার দিবসের কয়েকদিন আগেই নাকি এই বিষয়ে একটি বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। সেখানে বলা হয়, ১৫ থেকে ৩০ অগাস্টের মধ্যে যাঁরা এই দোকান থেকে ইলেকট্রনিক দ্রব্য কিনবেন, তাঁদের সেই ক্রয়ের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যদি করোনা ধরা পড়ে তাহলেই কিন্তু তাঁরা ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক পেয়ে যাবেন।

এরপর সর্বত্র ছেয়ে যায় এই বিজ্ঞাপন। কিন্তু প্রশাসনের নজরে এই বিজ্ঞাপন পড়তেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। স্থানীয় পুরপিতা এই গোটা বিষয়টি জানিয়ে চিঠি লেখেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের কাছে। তিনি বলেন, এইরকম বিজ্ঞাপন সম্পূর্ণ বেআইনি। এর ফলে বেআইনি করোনা রিপোর্ট বার করার হিড়িক পড়তে পারে। কেউ কেউ আবার ৫০ হাজারের লোভে ইচ্ছা করে করোনা সংক্রমিত হতে পারেন। এই দোকানদার সামাজিক দায়িত্ব জ্ঞান হারিয়ে ভুলে গিয়েছেন।

এরপরই প্রশাসন এই ঘটনার বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়। একটি মামলা দায়ের করা হয় অভিযুক্ত দোকানের বিরুদ্ধে। বলা হয়, এই দোকান আইনভঙ্গ করেছে। যদিও ততদিনে বিস্তর জলঘোলা হয়েছে এই বিজ্ঞাপন নিয়ে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: