Weather

ধেয়ে আসছে আম্ফান, তবে নির্নয় হচ্ছে না গতিপথ

বড়ই জটিল এই ঘূর্ণঝড়, তবে যেখানেই যাবে, হবে ভারী বৃষ্টিপাত

@ দেবশ্রী : যখন থেকেই আম্ফান এর কথা জানা গেছিল তখন থেকেই এই ঘূর্ণিঝড় এর গতিপথ নিয়ে নানারকম তত্ত্ব উঠে আসছে। কোন পথে এই ঝড় যাবে, এর ক্ষতিসাধন করার ক্ষমতা কতটা, কিন্তু তা যেন এখনও স্পষ্ট হচ্ছে না। এক একটি সংস্থা, এক একরকম করে পূর্বাভাস দিচ্ছে ঝড়ের। তবে এই ঝড় যে শক্তিশালী হয়ে স্থলভাগে আছড়ে পড়তে পারে, তা মনে করছেন অনেকেই।

সোমাবর আইএমডি জানিয়েছে, আগামীকাল, অর্থাত্‍ ১৩ মে, বুধবার এই আম্ফান ঝড়ের জন্ম প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে। আর আগামী ১৬ মে এই ঝড় তীব্র আকার ধারণ করবে। তবে এই সংস্থার পক্ষ থেকেই বলা হয়েছে, আম্ফানের গতিপথ নিয়ে এখনও দেশের ঘূর্নিঝড় ভবিষ্যবানী সংস্থাগুলি একই সিদ্ধান্তে পৌঁছতে পারেনি।

INCOIS এর মতে, স্থলভাগে আছড়ে পড়ার ক্ষেত্রে ১৬ মে এটি আকার নেবে তামিলনাড়ুর উপকূলে। তারপর অন্ধ্র উপকূলে এটি আছড়ে পড়তে পারে। সেখান থেকে একটি দক্ষিণ ওড়িশার দিকে চলে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। এর ফলে পূর্ব উপকূলে বেশ বড় ধরনের প্রভাব পড়তে বাধ্য।

ECMWF এর মতও এ ক্ষেত্রে কিছুটা একই। মনে করা হচ্ছে, ঘূর্ণিঝড় আম্ফান উত্তর অন্ধ্র উপকূলে সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলতে পারে। আর সেই কারণে ওড়িশার উপকূল বরাবর বিপুল পরিমাণে বৃষ্টিপাতের সম্ভবনা রয়েছে।

কিন্তু US-GFS মনে করছে, ভারতের দিকে এই ঝড় আসবেই না। বরং বঙ্গোপসাগরে তৈরি বলেও এই ঝড় সোজা চলে যাবে মায়ানমারের দিকে। সেখানেই স্থলভাগে আছড়ে পড়বে আম্ফান। আর এই পথে গেলে বেশি প্রভাব পড়তে পারে পশ্চিমবঙ্গের আবহাওয়ার ওপরে। সেক্ষেত্রে সবাইকে করা হচ্ছে সতর্ক।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: