Education Opinion

নজির গড়লো আমতার সাইফা , ১২ বছরেই উর্ত্তীর্ণ হলো জীবনের প্রথম পরীক্ষায়

১২ বছরে মাধ্যমিক পাশ করলো হাওড়া আমতার সাইফা

২১শে মে প্রকাশিত হয়েছে মাধ্যমিকের ফল। এবার মাধ্যমিকে জয়-জয়কার জেলাগুলিতে। মাধ্যমিকের সেরা তিনে রয়েছে জেলা। ফল প্রকাশের পর থেকেই এই নিয়ে আনন্দের শেষ নেই জেলায় জেলায়। আর এইবার কলকাতার নিকটবর্তী  জেলা হাওড়া-তেই মিললো  মাধ্যমিকের সর্ব কনিষ্ঠ পরীক্ষার্থীর সন্ধান। তার পোশাকি নাম সাইফা হলেও স্থানীয়দের কাছে সে  পরিচিত বিস্ময় বালিকা নামে। বয়স মাত্র বারো। হ্যা ঠিক ধরেছেন, এই সেই  মাধ্যমিকের সর্বকনিষ্ঠা পরীক্ষার্থী। শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি , মাত্র ১২ বছর বয়েসে মাধ্যমিকে দ্বিতীয় বিভাগে উর্ত্তীর্ণ হয়েছে সে। জানা গেছে, যে বয়সে আর পাঁচটা শিশু ভালো করে কথাই বলতে পারতো না সেই বয়সে সাইফা বাংলা ও ইংরিজি খবর খুব তাড়াতাড়ি পরে ফেলত। তাই মাত্র  পাঁচ বছর বয়সে চতুর্থ শ্রেণীর পড়া সে শেষ করে ফেলেছিলো। তবে দশ বছর বয়স না হওয়ায় স্কুল কর্তৃপক্ষ তাকে ভর্তি নেয়নি তাই মা শাহানারা বেগমের কাছেই  পড়ত সাইফা। এই বছর সাইফার বাবা শেখ মহম্মদ আইনুল পরিষদের কাছে মেয়েকে মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসানোর জন্য  আবেদন জানান। সাইফার বিস্ময়কর প্রতিভার কারণে মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার অনুমতিও দিয়ে দেন পরিষদ। হাওড়া সালকিয়ার একটি স্কুল থেকে বহিরাগত পরীক্ষার্থী হিসেবে পরীক্ষা দিয়েছিলো সে। তবে তার এই ফলাফলে খুশি নয় পরিবার। কারণ পরিবারের সবাই আসা করেছিল সাইফা মেধা তালিকায় স্থান পাবে। তার বাবার অভিযোগ এতো অল্প বয়েসে মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের কারণে তাকে নানাভাবে হেনস্থার শিকার হতে হয় আর তাই পরীক্ষায় আশানুরূপ ফল করতে পারেনি সাইফা। এই ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের কাছে জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি বলে জানান সাইফার বাবা। তবে মেধাতালিকায় নাম না তুললেও মাত্র ১২ বছরে সাইফা যে কৃতিত্বের পরিচয় দিয়েছে তাতে সত্যিই মানতেই হবে মেধা তালিকায় অন্তর্ভুক্ত ছাত্রছাত্রীদের থেকে সাইফার মেধা কোনো অংশেই কম নয় বরং অনেকাংশেই বেশি।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: