Health

নতুন ওষুধের কথা জানাল মার্কিন সংস্থা এফডিএ,কী সেই ‘অ্যান্টি ভাইরাল’ ওষুধ জানেন?

COVID-19 বিরুদ্ধে লড়াই এটি প্রথম ড্রাগ হিসাবে দেখানো চেষ্টা করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

প্রেরনা দত্তঃ করোনা সংক্রমণ ঠেকানোর মতো ‘অ্যান্টি ভাইরাল’ ওষুধ আবিষ্কার হয়েছে। বুধবার এমনটাই দাবি করেছেন আমেরিকার প্রথম সারির মহামারি বিশেষজ্ঞ অ্যান্টনি ফাওসি। ‘রেমডেসিভির’ নামের ওই ওষুধের কথা জানার পর বিশ্ব জুড়ে চিকিৎসক মহলে সাড়া পড়ে গিয়েছে।জরুরি ক্ষেত্রে হাইড্রোক্সাইক্লোরোকুইনের পর রেমডেসিভির ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিত্সারা৷

শুক্রবার মার্কিন নিয়ন্ত্রক সংস্থা এফডিএ জরুরি পরিস্থিতিতে পরীক্ষামূলকভাবে করোনা চিকিৎসায় রেমডেসিভি ওষুধ ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে৷ ওয়াইট হাউসে একথা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ এই ওষুধ করোনভাইরাস রোগীদের দ্রুত পুনরুদ্ধার করতে সহায়তা করে বলে মনে করা হচ্ছে৷

ফাওসি আমেরিকার ‘ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজ’-এর প্রধানও বটে। ‘রেমডেসিভির’-এর কথা জানিয়ে তিনি বুধবার হোয়াইট হাউসে সাংবাদিক বৈঠক করেন। সেখানে ফাওসি বলেন, “আমরা বহু পরীক্ষা চালিয়ে দেখেছি, করোনা আক্রান্ত রোগীদের সারিয়ে তুলতে রেমডেসিভির প্রায় ৩১ শতাংশ বেশি দ্রুততার সঙ্গে কাজ করছে। প্রায় ১১ দিনে সুস্থ হয়ে উঠছেন অনেকে।’’

মারণ ভাইরাসে সারা বিশ্বে ইতিমধ্যে প্রায় ২ লক্ষ ৩০ হাজার মানুষের জীবন কেড়ে নিয়েছে৷ শুধু মার্কিনমুলুকেই করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা প্রায় ৬৫ হাজার৷সম্প্রতি ১,০৬৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর শরীরে এই ওষুধ পরীক্ষা করা হয়েছে৷ একটি তুলনামুলুক গ্রুপকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে যা কেবলমাত্র স্বাভাবিকভাবে যত্ন নেওয়া হয়েছিল৷পরীক্ষার পর দেখা গিয়েছে, যাঁদের শরীরে এই ড্রাগ ব্যবহার করা হয়েছে, তাঁরা অন্যদের গড়ে ১৫ দিনের তুলনায় ১১ দিনের মধ্যে হাসপাতাল ছেড়ে যেতে সক্ষম হয়েছেন।

তবে সকলেই যে এই এই অ্যান্টি ভাইরাল নিয়ে খুব উচ্ছ্বসিত, তেমনটা নয়। এরিক টপল ক্যালিফোর্নিয়ার লা জোল্লায় ‘স্ক্রিপস রিসার্চ ট্রানজিশনাল ইনস্টিটিউট’-এর ডিরেক্টর। তিনি বলেন, ‘‘এটা কোনও ব্রেক থ্রু ওষুধ নয়। সবটা মিলিয়ে বেশ ধোঁয়াশা রয়ে গিয়েছে। আমি তো বিভ্রান্ত হয়ে রয়েছি এখনও।’’ একইসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘তবে এটা ঠিক, শুরুর শুরু হিসেবে এটা দুর্দান্ত। এবং নিরাপদ।’’

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: