Nation

নিজেদের স্বাধীনতার খাতিরে পাক সেনাদের উপর হামলা চালালো বালোচ বিদ্রোহীরা

হয় ভয়াবহ হামলা, মারা যান এক মেজর সহ ৭ জওয়ান

@ দেবশ্রী : একদিকে পাকিস্তানি সন্ত্রাসবাদীরা যখন ভারতের উপর হামলার জন্য ছক কষছে তখন অপরদিকে, আবারো পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর উপর ভয়াবহ হামলা চালাল বালোচ বিদ্রোহীরা। শুক্রবার দক্ষিণ বালোচিস্তানে ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরণে সেনার এক মেজর-সহ ৭ জওয়ান নিহত হয়েছেন। এই ঘটনার নিজেদের দায় স্বীকার করেছে ‘বালোচ লিবারেশন আর্মি’।

পাক সেনার এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, শুক্রবার দক্ষিণ বালোচিস্তানের কেচ জেলার ছোট্ট উপত্যকা বুলেদা থেকে ফিরছিলেন ফ্রন্টিয়ার কোরের এক মেজর-সহ ৭ জন। সেই সময় তাঁদের গাড়িতে ল্যান্ডমাইন দিয়ে হামলা চালানো হয়। পাকিস্তান-ইরান সীমান্ত থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। তিনি জানান, সন্ত্রাসবাদীদের সম্ভাব্য গতিবিধি দেখতেই মেজর-সহ ৭ জনের ওই দলটি বুলেদা উপত্যকায় গিয়েছিল। মৃত মেজরের নাম নাদিম আব্বাস ভাট্টি। তিনি পাঞ্জাব প্রদেশের হাফিজবাদ শহরের বাসিন্দা ছিলেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বালোচিস্তান পোস্ট এর মাধ্যমে জানা যায়, স্বাধীনতার জন্য লড়াই করা বালোচ লিবারেশন আর্মি এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। আর একটি ওয়েবসাইট সূত্রে খবর, চার সশস্ত্র গোষ্ঠীর মিলিত সংগঠন ‘বালোচ রাজি আজোই সাঙ্গার’ এই হামলা চালিয়েছে পাক সেনাদের উপর।

২০১৫-তে স্বাক্ষর হওয়া মউয়ের ভিত্তিতে চিন-পাকিস্তানের মধ্যে অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি নির্মাণকার্য শুরু হয়েছে। চিনের প্রস্তাবিত ‘ওয়ান বেল্ট, ওয়ান রোড’ নীতির উপর ভিত্তি করে, তাদের অর্থ সাহায্যেই এই করিডর তৈরি হচ্ছে। পাকিস্তানের গদর পোর্ট থেকে চিনের শিনজিং প্রদেশ পর্যন্ত মোট ২,০০০ কিলোমিটার দীর্ঘ জুড়ে এই পথটি তৈরি করা হচ্ছে। তবে এই করিডর নিয়ে প্রথম থেকেই বিক্ষোভ প্রদর্শন করে আসছেন বালোচিস্তান-সহ গিলগিট-বালতিস্তান ও পিওকে-র নাগরিকরা। তাদের অভিযোগ, পেশিশক্তির জোরে তাঁদের বাসভূমি কেড়ে নিয়ে এই করিডর তৈরি করছে পাকিস্তান। যাতে পূর্ণ মদত দিচ্ছে চিন। এই অভিযোগে দীর্ঘদিন ধরেই পাক প্রশাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালাচ্ছেন বালোচ নাগরিকরা এবং তাঁদের উপর অকথ্য অত্যাচার চালাচ্ছে এই পাক সেনা। আর তার জেরেই এই হামলা।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: