Entertainment

পরিচালক রঙ্গনের হাত ধরে এবারে আসতে চলেছে আধুনিক গুপী-বাঘা।

ফিরে আসতে চলেছে বাঙালির আইকনিক চরিত্র, তবে কেবলমাত্র নামেই, গল্পে নয়।

@ দেবশ্রী : বাঙালির আইকনিক চরিত্র গুপী-বাঘা। যা প্রত্যেকটি বাঙালির মনে গেঁথে রয়েছে। হেন কেউ নেই, যাঁরা তাদেরকে ভালোবাসে না। আর পুনরায় ফিরছে সেই বিখ্যাত জুটি গুপী-বাঘা। তবে সত্যজিত রায়ের কিংবদন্তী সেই ছবির পুনরাবৃত্তি করার সাহস কোনও পরিচালকই দেখাতে পারবেন না, তাই কেবলমাত্র নামেই রয়েছে মিল। আর একটি মিল হল, এই সিনেমাটিও মিউজিক্যাল। ছবির পরিচালক রঙ্গন চক্রবর্তী। এই ছবি বানানোর পরিকল্পনা তাঁর বহুদিনের কিন্তু নানান কারণবশত তা সম্ভবপর হয়ে ওঠেনি। কিন্তু পুনরায় এবার সেই প্রজেক্ট ফাইলের গিঁট খুলেছে। গুপীর ভূমিকায় রয়েছেন অভিনেতা দেব এবং বাঘার চরিত্রে রয়েছেন রাহুল ব্যানার্জী।

এই নতুন গুপী-বাঘার কনসেপ্ট-চিত্রনাট্য পুরোটাই রঙ্গনের মস্তিষ্কের খেল। আধুনিক গুপী-বাঘা ছবিকে নতুন আঙ্গিকে পেশ করা যথেষ্ট ঝুঁকির। নতুন কাহিনিতেও গুপী গান করে এবং বাঘা ড্রাম বাজায়। দু’জনের ইচ্ছে, তারা ব্যান্ড খুলবে। তবে সমস্যা দেখা যায় পরিবারে। অতএব, বাড়ি থেকে তাদের ডিজনকেই বার করে দেওয়া হয়। ভূতের রাজার তিন বর এখানেও রয়েছে। তবে ভূতের বদলে তা হয়ে গিয়েছে মহীন। হ্যাঁ, এটা সেই মহীনের ঘোড়াগুলির সূত্রেই। গুপী-বাঘা সামলে দিয়েছিল হাল্লা-শুন্ডির যুদ্ধ, হারিয়ে দিয়েছিল হীরক রাজাকে। এই ছবির গুপী-বাঘাও পৌঁছে যায় তেমনই একটা গোলমেলে একটি জায়গায়। সেই গোলমেলে জায়গার নাম হাফগানিস্তান। সেই সূত্রেই ছবির নাম দেওয়া হয় ‘গুপী বাঘা ইন হাফগানিস্তান’।

এই ছবিটি করার আগ্রহ জানিয়ে দেব নিজেই নাকি যোগাযোগ করেছিলেন পরিচালক রঙ্গনের সঙ্গে। শোনা যাচ্ছে, তিনি ছবিটি প্রোডিউসও করতে পারেন। এই সিনেমার প্রযোজক হিসেবে সুরিন্দর ফিল্মসের নামও উঠে আসছে। ছবির মিউজ়িক দেবজ্যোতি মিশ্রর। এর আগে ছবির নায়িকা হিসেবে শুভশ্রী ও প্রিয়াঙ্কা সরকারের কাজ করার কথা ছিল। বর্তমান পরিস্থিতিতে তা হয়তো সম্ভব নয়। তাই এখনও এই ছবিতে অভিনেত্রীদের বাছাই করা হয়নি। তবে খোঁজ চলছে অভিনেত্রীর। তবে এই আধুনিক গুপী-বাঘা কেমন হতে চলেছে আর কেমন হতে চলেছে তাঁদের জুটি তা দেখার জন্যে আগ্রহে রয়েছেন দর্শকেরা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: