Health

‘পুলিং অফ স্যাম্পলিং’ পদ্ধতিতে হবে এবার পরিযায়ী শ্রমিকদের পরীক্ষা

কম সময়ে এবং কম খরচে যাতে পরীক্ষা হয়, তার দিকেই এখন লক্ষ দিচ্ছে স্বাস্থ্য দপ্তর

@ দেবশ্রী : প্রতিদিনই ভিন্ন রাজ্যে আটকে পরা প্রচুর সংখ্যায় পরিযায়ী শ্রমিক সরকারি উদ্যোগে বাড়ি ফিরছেন। তবে তাঁরা করোনা আক্রান্ত কী না তা নিশ্চিত হতেই, সেই সব পরিযায়ী শ্রমিকদের করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হচ্ছে ‘পুলিং অফ স্যাম্পলিং’ পদ্ধতিতে। এর ফলে একসঙ্গে পাঁচজনের নমুনা করোনা পরীক্ষা হবে। নেগেটিভ রিপোর্ট এলে পাঁচজনই নিশ্চিত হবেন তাঁরা আক্রান্ত নন। আর পজিটিভ এলে তখন পৃথকভাবে পাঁচজনের আবার করোনা পরীক্ষা করানো হবে। এর ফলে কম সময়ে অনেক মানুষের করোনা পরীক্ষা করানো যাবে বলে মনে করছে স্বাস্থ্য দপ্তর। আর তাতে খরচও কমে যাবে।

পূর্ব বর্ধমানে অতিরিক্ত জেলা শাসক (উন্নয়ন) রজত নন্দা জানান, পুলিং অফ স্যাম্পলিং পদ্ধতিতে করোনা পরীক্ষা করানোর প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। তাঁর কথায়, করোনা পরীক্ষার পর খুব কম জনরেই পজিটিভ রিপোর্ট আসছে। এবং এই নয়া পদ্ধতিতে করলে কম সময়ে বেশি জনের করোনা পরীক্ষা করানো সম্ভব হবে।

অতিরিক্ত জেলা শাসক জানান, ফেরার পর স্বাস্থ্য দপ্তরের তরফে তাঁদের সকলের স্ক্রিনিং করা হচ্ছে। কেউ করোনা লক্ষ্মণযুক্ত হলে তাঁদের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হচ্ছে। আর লক্ষ্মযুক্ত না হলে হোম কোয়ারেন্টাইন করা হচ্ছে। এবার পুলিং অফ স্যাম্পলিং পদ্ধতিতে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। যাতে কম সময়ে এবং কম খরচে করোনা পরীক্ষা করা যায়।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: