Nation

প্রধামন্ত্রীর লোকাল-ভোকাল নিয়েই এখন শোরগোল সোশ্যাল মিডিয়ায়

প্রধানমন্ত্রী নিজে সবকিছু বিদেশী পনি ব্যবহার করেন, এদিকে বলছেন স্বদেশী জিনিস ব্যবহার করার জন্য

@ দেবশ্রী : গত মঙ্গলবার জাতিরত উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানে তিনি যে কথাটি বারবার বলেছেন, তা হল মহামারিতে ধ্বস্ত অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে ২০ লক্ষ কোটির প্যাকেজ ঘোষণা। এবং আন্তর্জাতিক ব্র‌্যান্ডের পণ্যের অভ্যাস ছেড়ে স্রেফ দেশজ ব্যবহারের আহ্বান। তবে এই দ্বিতীয় বিষয়টিকে নিয়েই সোশ্যাল মিডিয়ায় শোরগোল পড়ে গেছে। কারণ একদা ‘‌চা-‌ওয়ালা’‌ প্রধানমন্ত্রীর ব্র‌্যান্ডেড পোশাক, ঘড়ি, রোদচশমার ওপর বিশেষ দুর্বলতা সর্বজনবিদিত।

দেশকে স্বনির্ভর করতে ‘‌লোকাল’‌ নিয়ে ‘‌ভোকাল’‌ হওয়ার আবেদনে উত্তর কোরিয়ার স্বৈরতন্ত্রী শাসক কিম জং উনের মিল খুঁজে পেয়েছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। প্রধানমন্ত্রীকে মশকরা করে তিনি ট্যুইট করেন, ‘‌মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কথা শুনছি। খুব মিল খুঁজে পাচ্ছি উত্তর কোরিয়ায় কিম জংয়ের সঙ্গে।’‌ এর পর তিনি বলেন যে, ‘‌কিমের একটি মূল আদর্শ হল জুচ। এতে উত্তর কোরিয়াকে বিশ্বের মধ্যে আলাদা থাকতে হবে। স্বতন্ত্র অস্তিত্ব তৈরি করতে হবে নিজ শক্তিবলে ও একজন ঈশ্বরতুল্য নেতার নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করে।’‌

প্রধানমন্ত্রীর স্বনির্ভরতার এই মন্ত্রে মজছেন না প্রাক্তন স্বাস্থ্য সচিব কে সুজাতা রাও। তিনি টুইট করেছেন, ‘‌প্রধানমন্ত্রীর গতকালের টুইট হতাশ করেছে। ভারত যে মানবিক সঙ্কটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, তাই নিয়ে কিছু বললে পারতেন তিনি। গরিব মানুষ রয়েছে বিপণনে। তাঁদের সহমর্মিতার প্রয়োজন ছিল। ওনার মানবিক হওয়ার দরকার ছিল।’‌

টুইটার ছেয়ে গেছে তির্যক সব টুইটে। জনৈক এম কে বেণুর টিপ্পনী, ‘‌একজন ব্যক্তি আছেন, যিনি মেব্যাকের রোদচশমা, মোভ্যাকের ঘড়ি পরেন। মব্লঁা পেনে লেখেন। বিএমডব্লিউ গাড়িতে চড়েন। তিনিই আমাকে দেশি জিনিস কিনতে বলছেন। সময়ের সঙ্গে আত্মনির্ভরতার অর্থ বদলায়!‌’‌

এমনভাবেই অনেকেই প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে করেছেন ট্যুইট।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: