Nation

ফতেবীর সিংহের্ আর আম্মির কাছে ফেরা হলো না, ওর খেলনা পরেই রইলো বিছানাতেই

ছোট্ট ফতেবীর বয়স ২, আম্মির কাছে সকাল থেকেই খেলনার জন্য বায়না , আম্মি বলেছিলো বাজে থেকে ফেরার সময় আনবে !

কূপ থেকে উদ্ধার করেও বাঁচানো গেল না দু’বছরের শিশুকে, থিম গেল সব যুদ্ধ – ১০৯ ঘণ্টার লড়াই থামল, দু’বছরের একটি শিশুকে বহু চেষ্টার পর তুলে আনা হলেও তাঁকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি ,১৫০ ফুট গভীর একটি কুয়োয় প্রায় ৫ দিন ধরে আটকে থাকা । ঘটনাটি হয়েছে পঞ্জাবের সাংগ্রুর জেলার ভগবানপুরা গ্রামে। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। জেলার পুলিশ জানিয়েছে, শিশুটির নাম ফতেবীর সিংহ। । এই খানে বহু দিন ধরে কুয়োটি থেকে জল তোলা হয়নি বলে সেটি কার্যত ব্যবহার হতো না।

কূপ থেকে উদ্ধার করেও বাঁচানো গেল না দু’বছরের শিশুকে, থিম গেল সব যুদ্ধ – ১০৯ ঘণ্টার লড়াই থামল

পাঞ্জাব পুলিশ জানাচ্ছে, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই পরিত্যক্ত কুয়োটির পাশে খেলা করছিল শিশুটি। সেই কুয়োটি গভীর হলেও তা সাত ইঞ্চির বেশি চওড়া নয়। আর কুয়োর মুখটি ঢাকা দেওয়া ছিল একটি কাপড় দিয়ে।ছোট্ট ফতেবীরের খেলা করতে করতে শিশুটি সেই কাপড়ে পা দিয়ে ফেলে। ফতেবীরের চাপে সঙ্গে সঙ্গে কাপড়টি ছিঁড়ে যায়। ফতেবীর পড়ে যায় গভীর কুয়োয়।ছুতে আসে তার মা তাকে উদ্ধারের অনেক চেষ্টা করেন। কিন্তু ফতেবীরের মায়ের পক্ষে গভীর কুয়ো থেকে শিশুটিকে বের করে আনা সম্ভব হয়নি।ডাক দে পরিবারের সকলকে , পাশের লোক জড়ো হয়ে যায় , খবর যায় পুলিশের কাছে। জেলার পুলিশ না পারলে ডাক পরে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী কে।

টানা ৫ দিন ধরে চেষ্টা চালিয়ে মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৫টা নাগাদ গভীর কুয়ো থেকে উপরে তুলে আনেন শিশুটিকে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর কর্মীরা । ফতেবীর কে কুয়োর ১২৫ ফুট গভীরতা থেকে উদ্ধার করা হয়। ফতেবীরকে উদ্ধার করার জন্য ৩৬ ইঞ্চি চওড়া আরও একটি কুয়ো খোঁড়া হয় ওই পরিত্যক্ত কুয়োটির পাশে। এরপর তোলার পর চণ্ডীগড়ের পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হলে শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: