Science & Tech

ফেসবুক নিচ্ছে কড়া পদক্ষেপ, তৈরী হল ২০ সদস্যের বোর্ড

আর যাতে কোনোরকম আপত্তিকর পোস্ট বা ছবি ফেসবুকে ছড়ায়, তার দিকেই নজর কর্তৃপক্ষের

@ দেবশ্রী : সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেক সময়েই অনেক ভুঁয়ো খবর ছড়িয়ে পড়ে, এছাড়া আরও আপত্তিকর বিষয় বস্তু। তাই পোস্ট করা কনটেন্ট খতিয়ে দেখতে ২০ সদস্যের বোর্ড গঠন করল ফেসবুক। বুধবার এই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সংস্থাটির তরফে জানানো হয়েছে, এই বোর্ডে রয়েছেন বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রের মানুষ। ডেনমার্কের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী থেকে সাংবাদিক, সমাজকর্মী, মানবাধিকার কর্মীরা রয়েছেন এই বোর্ডে। ভুয়ো খবর বা আপত্তিকর লেখা, ছবি, ভিডিও যাতে ফেসবুকের মাধ্যমে না ছড়িয়ে পরে সে ব্যাপারে বেশ কয়েক বছর ধরেই সতর্ক এই পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সংস্থাটি।

২০১৮ সালেই ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতাতা মার্ক জুকারবার্গ এই ধরনের একটি প্যানেল গঠনের পরিকল্পনার কথা জানিয়েছিলেন। এবার বুধবার তা বাস্তবায়িত হয়েছে বলে ঘোষণা করল ফেসবুক। বিভিন্ন সময়ে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামের বিভিন্ন পোস্ট নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয় কর্তৃপক্ষকে। ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস থেকে নানা বিষয়ে অভিযোগ ওঠে। অনেকের বক্তব্য ছিল, যথাযথ নজরদারি নেই বলেই বারবার এই ধরনের ঘটনা ঘটছে। শুধু তাই নয়, ফেসবুকের মঞ্চ ব্যবহার করে একাধিকবার সাম্প্রদায়িক উস্কানি ও ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগও উঠেছিল। সেসব দেখেই এই পদক্ষেপ করল জুকারবার্গের সংস্থা।

তবে ফেসবুকের তরফে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, এই বোর্ড কখনওই মানুষের বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করবে না। অনলাইন পুলিশি করাও উদ্দেশ্য নয়। যাতে কোনও হিংসা, ঘৃণা না ছড়ায় সেটাই নিশ্চিত করতে এই পদক্ষেপ। আগামী দিনে এই স্বাধীন বোর্ডে ৪০ জন পর্যন্ত সদস্যকে নেওয়া হতে পারে। অর্থাত্‍ এবার থেকে যে লেখা, ছবি বা ভিডিওতে আপত্তি রয়েছে বলে মনে করবে এই বোর্ড তা সরিয়ে দেওয়া হবে ফেসবুক থেকে। তার জন্য আলাদা মেকানিজমও আনছে ফেসবুক। তার ফলে আর গণরিপোর্টের অপেক্ষা করতে হবে না। তার আগেই সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সরিয়ে ফেলা হবে সেই বিতর্কিত পোস্টটি।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: