West Bengal

বিজেপির মিছিলে বন্ধ রৌদ্র রাস্তা

গতকালের মিছিলে জেরবার পথচারীরা

অভিযান লালবাজার।পুলিশের সদর দপ্তরকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হয়েছিলো আশেপাশের কয়েক কিলোমিটার এলাকা।লোহার ব্যারিকেড , র‌্যাফ ,জলকামানের ঘেরাটেপ পেরিয়ে লালবাজার পর্যন্ত পৌঁছতে পারেনি গেরুয়া বাহিনী। কিন্তু নিরাপত্তা বলয়ের এই দুর্গকে পেরিয়ে গন্তব্যে পৌঁছতে ভোগান্তি বেড়েছিল সাধারণ মানুষের।  অনেকে হেঁটেই পৌঁছেছেন। অনেকে আবার বেঁছে নিয়েছিলেন মেট্রোকে। দুপুর ১ তা থেকে ৩ তে পুরো ২ ঘন্টা ধরে চলেছে এই ভোগান্তি। তারপর ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরেছে চিত্তরঞ্জন এভিনিউ সহ অন্য রাস্তা।

২০১৭ সালে লালবাজার অভিযান ঘিরে বিজেপির কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে খন্ড যুদ্ধ বেঁধেছিলো কলকাতা পুলিশের। সেই অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার আগে থেকেই নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হয়েছিলো। লোহার ব্যারিকেড ,মেটাল শিল ব্যারিকেড। গার্ড রেল ও দড়ি দিয়ে আটকে দেওয়া হয়েছিল লালবাজার ঢোকার সব রাস্তা। বেশ কিছু রাস্তায় জারি করা হয়েছিল ১৪৪ ধারা।

এত জোরদার নিরাপত্তার মধ্যে এ দিন লালবাজারের মূল গেটের কাছে পৌঁছে যান তিন মহিলা সমর্থক। তবে দ্রুত পরিস্থিতি সামলানো হয়। রীতিমতো ধস্তাধস্তি করে ওই তিন মহিলা সমর্থককে ভিতরে নিয়ে যান মহিলা পুলিশকর্মীরা।

লালবাজারের সামনে বিজেপির পাঁচ সমর্থক পৌঁছে গিয়েছেন ,এই খবর পাওয়ার পরে নিরাপত্তায় আরো কড়াকড়ি শুরু হয় অন্য জায়গাগুলিতে।দুপুর দেড় টা নাগাদ ওয়েলিংটনে সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার থেকে বেরিয়ে চিত্তরঞ্জন এভিনিউ ও বিবি গাঙ্গুলি স্ট্রিটের মোর আসে পৌঁছয় বিজেপির একটি মিছিল। প্রথম ব্যারিকেড পার করে দ্বিতীয় ব্যারিকেডের কাছে আসতেই মিছিলের পথ আটকায় পুলিশ। বিজেপির নেতা -কর্মীদের সঙ্গে বচসা বাধে পুলিশ কর্মীদের।

মিছিল শুরু হওয়ার খবর পেয়ে দুপুর ১ টার পর গিরিশ পার্ক থেকে ধর্মতলা মুখী উভয় লেন বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে বন্ধ হয়ে যাই ব্রেবোর্ন রোড থেকে কলকাতা মুখী রাস্তা। গণেশচন্দ্র এভিনিউ।,বি বি গাঙ্গুলি স্ট্রিট থেকে লালবাজার যাওয়ার রাস্তা ,নির্মলচন্দ্র সেন স্ট্রিট এবং লেনিন সরণি থেকে রাজা সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার পর্যন্ত রফি আহমেদ কিদোয়াই রোড। হাওড়া থেকে দক্ষিণ কলকাতার দিকে যাওয়া সব গাড়িকে স্ট্র্যান্ড রোড দিয়ে ঘোরানো হয়। উত্তর কলকাতা মুখী গাড়ির জন্য খুলে দেওয়া হয়েছিল মহাত্মা গাঁধী রোড। অন্য দিকে মধ্য কলকাতা থেকে দক্ষিণ কলকাতার দিকে যাওয়া গাড়িগুলিকে বিবেকানন্দ রোড ও এপিসি রোড দিয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়। তিনটের পরে সব রাস্তা খুলে দেওয়া হয়।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: