Big Story

বিজেপি-তৃণমূল আজ ঝামেলা পাকালে সিপিআইএম পূর্ণ শক্তিতে নামবে রাস্তায় : গার্গীর হুঁশিয়ারি

মানুষের দাবিকে আর ফেরাতে পারছে না সিপিআইএমের একাংশ , তাই রাস্তার পথ বাছেতে চলেছে গার্গীরা । কিন্তু বাধা হয়ে কোথায় চলছে গবেষণা ! ওপিনিয়ন টাইমস সিপিআইএমের নেত্রী গার্গী চ্যাটার্জীর সাথে কথা বলে ,

কেমন আছে ভাটপাড়া ? গার্গী সাফ জানান “এই সবটাই হচ্ছে মমতা ব্যানার্জির চাওয়াতে , অর্জুনের উত্থান , মদনের বেড়ে ওঠা , জ্যোতিপ্রিয়র বাড়াবাড়ি সবটাই ওনার অনুপ্রেরণায়। কি হচ্ছে বলুন তো ১৪৪ ধারা চলছে কাল সকাল থেকে , বন্ধ ইন্টারনেট পরিষবা। শান্তির জন্য এলাকায় মাইকে আবেদন করছে পুলিশি । কাকিনারা বাজার বন্ধ , জুটমিল বন্ধছিলো ওটা আমরা চেয়েছিলাম তিন শিফটে কাজ হোক রাজ্যসরকার মালিকের সাথে কথা বলে দুই শিফট করলো তাই ওখান থেকেই শুরু হল গন্ডগোল। এই গন্ডগোলে মদত দেওয়া উভয় পক্ষের নেতারা বহাল তবিয়তে পুলিশি নিরাপত্তা নিয়ে এলাকা দাপাচ্ছে।যদি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ও অর্জুন সিং দোষ করে থাকে তাহলে গ্রেফতার করছে না , ওদের বিরুদ্ধে কত মামলা ঝুলছে। তার ওপর মদন মিত্র কে নামিয়েছে তৃণমূল , তিনি আসছেন ঝামেলা পাকাচ্ছেন , বোধ হয় পয়সা কড়ি দিচ্ছেন আর চলে যাচ্ছেন। সবটাই ওনার অনুপ্রেরণায় , তৃণমূলের দুষ্কৃতী রাজ্ আর বিজেপির গুন্ডাবাজ সবটাই ওর অনুপ্রেরণায়”।

ওপিনিয়ন টাইমস : কি করবেন আজ যদি ১৪৪ ধারা থাকতেও বিজেপি মৃত দেহ নিয়ে মিছিল করে ,ঝামেলা হয় তাহলে সিপিএম কি শুধু একঘন্টার শান্তি মিছিল আর বিক্ষোভ বা থানা ঘেরাও এর মধ্যে অবোধ থাকবে কি ?

গার্গী : প্রথম কথা রামবাবু সাউ ও ধরমবীর সাউ যে দুজন মারা গেছেন তারা কোন রাজনীতি করতো না। কোন পার্টির সাথে যুক্ত নন। ওরা ফুচকা বিক্রি করেন এটাই এদের ব্যবসা , আমি ওদের প্রায় কুড়ি বছরের বেশি চিনি। রাম বাবুর কাছেই আমি ফুচকা খেতাম , আগে ওনার বাবার কাছে খেতাম।কোন দিন ওরা না বিজেপি না তৃণমূল ছিল। ওরা কোনো পার্টির মিছিলে যেতেন না , বিজেপি তৃণমূল মরা কেনা বেচা করার রাজনীতি করে। আমরা এই সবে বিশ্বাসী নই।

ওপিনিয়ন টাইমস : আপনি কি বলেন আজ যদি ১৪৪ ধারা থাকতেও বিজেপি মৃত দেহ নিয়ে মিছিল করে ,ঝামেলা হয় তাহলে সিপিএম কি শুধু একঘন্টার শান্তি মিছিল আর বিক্ষোভ বা থানা ঘেরাও এর মধ্যেই থাকবে কি ?

গার্গী : আমরা এবার নামবো যদি বিজেপি দুপুরে সমস্যা করে তাহলে আমরাও রুখে দাঁড়াবো , ছেড়ে কথা হবে না। আমরাই তো প্রথম শান্তি মিছিল করলাম। আমরাই তো পুলিশের নিষ্ক্রিয়তার কথা জানিয়েছি। দুদিন আগে একমাত্র দল পুলিশ ফাঁড়িতে গেছিলাম শান্তি বৈঠকে, কৈ তৃণমূল আর বিজেপি তো এলো না। আমরাই তো দাবি তুলে ছিলাম বিজেপি আর তৃণমূলের দুই মাথা কে কেন গ্রেফতার করা হবে না , কেন রাজ্য সরকার সাহস দেখালো না। আমরা তো অনেক বার অর্জুন সিংহ কে গ্রেফতার করতে বলেছি , মমতা তখন তো ওনাকে মাথায় তুলে নেচেছে।

ওপিনিয়ন টাইমস : বিজেপির ভূমিকা ?
গার্গী : যে কোন ঘটনাকে ওরা হিন্দু মুসলিম করছে , এটা বিজেপি দায়ী। হিন্দু মুসলিমের নামে গন্ডগোলে দু জন মারা গেছে। কি হচ্ছে এ সব , করা এরা , কি হবে আগামী দিন। বামপন্থীরা মানুষের দায় মাথায় নিয়ে চলে।

ওপিনিয়ন টাইমস :আজকের বিজেপি মৃতদেহ নিয়ে মিছিল করবে, সেখানে যদি ঝামেলা হয় , রক্তরোক্তি ঘটে তাহলে আপনারা কি করবেন ?
গার্গী : বাম পরিষদও দল আসবে , তারপর আমরা বুঝে নেবো রাস্তায়। থানা ঘেরাও করবো , আমরা আইন ভাঙবো না। কার্ফু চলছে , তবে বাড়াবাড়ি করলে দেখে নেব , ভালো কোথায় না হলে , চেনা কোথায় বোঝাতে হবে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: