Big Story

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে অতিরিক্ত ৩ কোটি ডলার অনুদানের ঘোষণা চিনের

একদিকে যখন আমেরিকা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুদান বন্ধ করছে তখনই চিনের বাড়তি অনুদান দেওয়ার এই ঘোষণা যে যথেষ্ট বার্তাবহ তা স্পষ্ট।

প্রেরনা দত্তঃ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস নিয়ে সারা বিশ্ব যখন অভিযোগের আঙুল তুলেছে, তখন একমাত্র বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাই বার বার পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে ৩ কোটি ডলার বাড়তি অনুদান ঘোষণা করল চিন। টুইটারে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লিখেছেন, আমাদের দেশ সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডব্লিউএইচও-কে বাড়তি ৩ কোটি ডলার দেওয়া হবে। বিশ্বজুড়ে কোভিড ১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াই চালানোর জন্য এর আগে আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে ২ কোটি ডলার দেব বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম।

প্রথম থেকেই করোনা সংক্রমণকে কেন্দ্র করে একে অপরকে বিঁধেছে চিন ও আমেরিকা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প করোনাভাইরাসকে চিনা ভাইরাস বলেও দোষারোপ করেছিলেন বেজিংকে। কয়েকদিন আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট স্পষ্ট জানিয়েছিলেন, ইচ্ছাকৃত ভাবেই হোক বা অনিচ্ছাকৃত ভাবেই সারা বিশ্বে করোনা সংক্রমণের জন্য দায়ী চিন। তাঁরা যদি ইচ্ছাকৃত ভাবে এই কাজ করে থাকে তাহলে ফল ভালো হবেনা। এমনও হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

চিনের কমিউনিস্ট সরকার যেমন আর্থিক সাহায্য দিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পাশে দাঁড়িয়েছে, তেমনই চিনের বিশিষ্ট শিল্পপতি ও এশিয়ার অন্যতম ধনকুবের জ্যাক মা’ও চিকি‍ৎসা সামগ্রী দিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন। করোনা মহামারির মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অর্থায়ন স্থগিতের ঘোষণা দিয়ে বিশ্ব জুড়ে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছেন ট্রাম্প।

মানবহিতৈষী বিল গেটস থেকে শুরু করে যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, এবং চীনও এই সমালোচনায় যোগ দিয়েছে। ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছে আমেরিকান মেডক্যাল অ্যাসোসিয়েশনও। তবে কোভিড সংক্রমণের এই কঠোর সময়ে বিশ্ব কূটনীতির রঙ্গমঞ্চে নতুন নতুন চাল যে দিচ্ছেন দুই প্রধান। তা কার্যত দিনের আলোর মতো পরিষ্কার।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: