Weather

ভেসে উঠছে আয়লার স্মৃতি, আতঙ্কে বহু মানুষ !

আমফানের মোকাবিলা করতে নেওয়া হচ্ছে ব্যবস্থা, তবুও আশ্রয়হীন অনেকে

@ দেবশ্রী : এখনও মানুষের মন থেকে যায়নি ১১ বছর পুরানো সেই আতঙ্ক, তা রয়েছে এখনো টাটকা। আমফান যেভাবে ফুঁসে চলেছে তা বারবার মানুষকে মনে করিয়ে দিচ্ছে অয়লার স্মৃতি। তখন যে তান্ডব আয়লা দেখিয়েছিল, মানুষের থেকে যেভাবে তার সর্বস্ব কেড়ে নিয়েছিল তেমনই ভয়াবহতা ফুটে উঠছে মানুষের মধ্যে। চিন্তার ভাঁজ বনবিভাগের কপালেও দিয়েছে দেখা। কারণ এই আমফানের ফলে নিশ্চিহ্ন হয়ে যেতে পারে সুন্দরবনের মরিচঝাঁপি ও কুমিরমারি দ্বীপ। আয়লার সময় সেই একই ঘটনা ঘটেছিল। কিন্তু তারপর ধীরে ধীরে আবার জেগে উঠেছে দ্বীপগুলি। এবার আয়লা পরবর্তী সময়ের মতো জলের তলায় তলিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে প্রবল।

এই এলাকায় রয়েছে রায়মঙ্গল নদী। আশঙ্কা জাগছে, আমফানের ফলে নদীতে যদি প্রবল জলচ্ছ্বাস শুরু হয় তাহলে জল উঠে আসবে স্থলভাগে। ফলে জঙ্গল থেকে বন্য পশুরা নদীর সঙ্গে ভেসে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এমনকী স্থলভাগের খোঁজে তাদের লোকালয়ে ঢুকে পড়াও বিচিত্র নয়। ফলে আতঙ্কে প্রহর গুণছেন সাধারণ মানুষ।

যদিও ইতিমধ্যে এলাকা থেকে অনেক মানুষকে ত্রাণ শিবিরে সরিয়ে নিয়ে যাওযার হয়েছে। কিন্তু তার সংখ্যা অত্যন্ত অল্প। মরিচঝাঁপি দ্বীপের ঝিলা ফরেস অফিসে এই মুহূর্তে তত্‍পরতা তুঙ্গে।

সকাল থেকেই দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন এলাকাতে শুরু হয়েছে ব্যাপক ঝড় বৃষ্টি। জেলা প্রশাসনের পরিসংখ্যান বলছে সবথেকে বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে সাগরে, সেখানে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ প্রায় ৮৫ মিলিমিটার। যত বৃষ্টি হচ্ছে ততই ভাঙছে নদীর বাঁধ। ইতিমধ্যে বিভিন্ন জায়গাতে নদী বাঁধের ধস নিয়েছে। এখনও পর্যন্ত প্রায় দু’লক্ষ মানুষকে বিভিন্ন এলাকা থেকে সরিয়ে আনা হয়েছে নিরাপদ আশ্রয়ে। আরও বহু মানুষকে সরানোর পরিকল্পনা শুরু করেছে প্রশাসন।

ইতিমধ্যেই সুন্দরবনের মাতলা বিদ্যাধরী গোমর বুড়িগঙ্গা হাতানিয়া দোয়ানিয়া প্রভৃতি নদীতে ব্যাপক পরিমাণে জল বাড়তে শুরু করেছে। অমাবস্যার কোটালের আগে এই ব্যাপক জল স্ফিত সমস্যায় ফেলছে সুন্দরবনের মানুষকে। নোনা জল ঢুকে বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়ে গেলে নতুন করে আবার আশ্রয়হীন হয়ে পড়বেন বহু মানুষ। ধ্বংসের মুখে পড়বে সুন্দরবনের সব বিস্তীর্ণ এলাকা। এখন জানা নেই আর কতটা ভয়াবহ হবে এই ঘূর্ণিঝড় আমফান, তবে এর জেরে যে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ঘটবে তা ভেবেই মানুষ হয়ে রয়েছে আতঙ্কিত।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: