Big Story

মদন মিত্র অপকটে স্বীকার : ফিরহাদ হাকিম, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌগত রায়ের নাম তো ছিল সারদা তে আমাকেই শুধু ফাঁসানো হল কেন ?

তৃণমূলের একদল শীর্ষস্থানীয় নেতার নাম করে বললেন , আমাকেই বলির পাঠা করা হল।

আজ মদন মিত্র মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়ের সরকারের বিরুদ্ধে তোপ ডাকলেন।
তিনি কি কি বললেন ?
১) ২০১৬ সালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে কামারহাটি থেকেই দ্বিতীয়বার প্রার্থী করেছিলেন।
২) “আমি প্যারোল চেয়েছিলাম। পাইনি। আমায় বলা হয়েছিল নির্বাচন কমিশন দিচ্ছে না। পরে জেনেছি, প্যারোল দেওয়া – না দেওয়ায় কমিশনের কোনও হাত নেই। ৩) “আমি ৪৩টি আবেদন করেছিলাম কারা দফতরকে। কিন্তু সেই সব চেপে দেওয়া হয়েছিল।” প্রয়াত তৃণমূল নেতা তথা তৎকালীন কারামন্ত্রী হায়দার আজিজ সফির আমার বিরুদ্ধে কেজ করলেন “
৪) “আজ তিনি নেই। কবরে চলে গিয়েছেন। তাই উত্তর দিতে পারবেন না। তাঁর সরকারই যে আমায় প্যারোল দেয়নি, এটা হয়তো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও জানেন না। কিন্তু এটাই সত্যি।”
৫) তাঁর আক্ষেপ, কিছু দিনের জন্য প্যারোল পেলে হারতে হতো না তাঁকে।
৬) “আমাদের পার্টির কিছু নেতা বলছে তাঁদের নামেও সিবিআই ছিল কিন্তু তাঁরা জিতেছেন। জো জিতা ওহি সিকান্দর। কিন্তু আমি মনে করিয়ে দিতে চাই, তাঁদের সিবিআইয়ের বোঝা বইতে হয়নি।”
৭) “ছত্রধর আমায় বলেছিল, আমি মাওবাদী। দেশদ্রোহী। তাও আমি ১৫ দিনের প্যারোল পেয়েছি। আপনি পেলেন না!”
৮) “আমাদের কোনও নেতাকে দূরে গিয়ে দাঁড়াতে হয়নি। সবাই বাড়ির কাছে দাঁড়িয়ে জিতেছেন। আর আমি যতবার দাঁড়িয়েছি ততবার ২৫-৩০ কিলোমিটার দূরে গিয়ে।
৯) ” বাম জমানায় সিপিএমের সন্ত্রাস ঠেকিয়ে বিষ্ণুপুর পশ্চিমের উপনির্বাচনে জয়ের কথাও তুলে ধরেন মদন।
১০) “আমায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চিনে পাঠিয়েছিলেন। আমি সেখানে বক্তৃতা করতে গিয়ে বলেছিলাম, আমি বাংলা থেকে এসেছি। যেখানে গত ৩৪ বছর ধরে লাল সন্ত্রাস চলছে। চিনের কমিউনিস্ট পার্টি সেমিনার বন্ধ করে ডিনারে নিয়ে গিয়েছিল। আমি সেই মদন মিত্র। অনেকে আন্ডার এস্টিমেট করছেন!”
১১) তিনি তৃণমূল ছেড়ে কোথাও যাবেন না। , এতে হয়তো কিছুটা স্বস্তি পেতে পারে কালীঘাট।
১২) সিন্ডিকের মাল খারাপ , তাও নিতে হয় বলে অভিযোগ করেছেন কেও কেও অভিযোগ করছেন , এটা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী কথা বলছেন ওটা ওনার বিষয় নয়
১৩) মমতা ব্যানার্জী আমার সাথে হেটে ছিল , কিন্তু আমি লোড়ে জিতে ছিলাম।
১৪) আমাকে পেরোল দিলোনা বলে আমি কামার হাটি জিততে পারলাম না
১৫) সৌগত দা জানুন আমি না থাকে আপনি জিততে পারতেন না , আমি না জিতে সৌগত দা জিতে গেছেন আমার জন্যে।
১৬) কল্যাণী হাই ওয়েতে কি কেলেঙ্কারি হয়েছে , তার পিছনে কে আছে ?
১৭) দোলা সেনের নাম না করে কাটমানির বিপক্ষে কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না।

মদন মিত্র ক্ষোভ উগলিয়ে দিলেন দলের নেতাদের বিপক্ষে , এখন অনেকে তৃণমূল ছেড়ে চলে যাচ্ছে তারা ঠিক না ভুল আগামীতে জানা যাবে। চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন দলের সকল নেতার বিপক্ষে।সারদা কাণ্ডের ঘটনার পর অনেকেই মদন মিত্রকে এড়িয়ে চলে , সেই অপমানের কথা ঠারেঠোরে বুঝিয়ে দিলেন। নিজের পুরানো কথা তুলে ধরলেন .

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: