Big Story

ঘরোয়া ঘোষণা হলেও মন্ত্রী বদলে চমক দিতে শোভন চ্যাটার্জীকে কে ফের মন্ত্রী করতে পারেন মমতা

রাজ্যপাল কে চিঠি মমতার , বদল হবে মন্ত্রী সভা করতে হবে স্বপথ গ্রহণ !

রাজ্যের আমলা দের বদলিয়ে এবার হাত দিলেন মন্ত্রী সভায় , অনেক আশা করে ছিলেন যে , দিল্লি তে মন্ত্রী সভা করবেন , কিন্তু সব বদলিয়ে দিলো সিপিআইএম , দিলো ভোট বিজেপিকে আর ব্যাস! ওরা মন্ত্রী সভা করছে তাই আমাদেরও মন্ত্রী সভা বদল করে নতুন মন্ত্রী সভা করতে হবে- এরকমই মজা চলছে নবান্নের অলিতে গলিতে।


মন্ত্রিসভার রদবদল তথা শপথ গ্রহণের জন্য সময় চেয়ে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর কাছে চিঠি পাঠাল নবান্ন। কদিন আগে ববি ফোনে কথা বলেছেন শোভনের সাথে দিদির অনুমতি নিয়ে , কি কথা হয়েছে তা জানা যায়নি তবে এরকম কিছু যে ‘ দলের দুর্দিনে ফিরে আয় ‘ তাই জোর জল্পনা চলছে হরিশ চ্যাটার্জী স্ট্রিট থেকে নবান্ন।

নিয়ম মত মন্ত্রিসভার সদস্যদের মধ্যে শুধু দফতর পরিবর্তন করতে হলে রাজ্যপালের সময়ের প্রয়োজন হয় না।নিয়ম হল রাজ্যপাল তাঁর সরকারের মন্ত্রিসভায় দফতর বদলের বিষয়টি শুধু বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানিয়ে দেন মাত্র।এক্ষেত্রে কিন্তু রাজভবনের সময় চাওয়ার অর্থ, বর্তমান কয়েকজন মন্ত্রীকে মন্ত্রিসভা থেকে অপসারণ করবেন মুখ্যমন্ত্রী।

কে রইলেন আর কে গেলেন তার আগাম কোন খবর নেই । তৃণমূলের নেতারা অনেকেই ধরে নিচ্ছেন যে রদবদলে ফের গুরুত্ব বাড়তে পারে পরিবেশ ও পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর। পরিবহণ দফতরের পাশাপাশি তখনই তাঁকে পরিবেশ দফতরের দায়িত্ব দেওয়া হয় , তৃণমূলের অনেকের মতে শুভেন্দুকে এ বার আরও গুরুত্বপূর্ণ দফতরের মন্ত্রী করা হতে পারে। কিছু নিন্দুকরা বলছেন শুভেন্দুকে উপ মুখ্যমন্ত্রীও করে দিতে পারেন মমতা। তবে তৃণমূলের এক প্রবীণ নেতার কথায়, মমতা ক্ষমতা লোভী , মানবেন না কারো ফরমান । এ কথা রটিয়ে দিয়ে আসলে শুভেন্দুর যাত্রাভঙ্গ করার চেষ্টাও হতে পারে ।

নবান্নে এর পাশাপাশি শিক্ষা দফতর থেকে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সরিয়ে দেওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে না। নবান্ন ও তৃণমূলের একাধিক সূত্রের দাবি, উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী গৌতম দেব, কারা মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস, কৃষি বিপণন মন্ত্রী তপন দাশগুপ্ত, প্রাণী সম্পদ বিকাশ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, শ্যামল সাঁতরা প্রমুখ বাদ যেতে পারেন, আস্তে পারে নতুন কিছু মুখ , তুলে আন্তে পারে শোভন দেব চ্যাটার্জী কে। সুব্রত মুখার্জীর মত প্রবীণকে কি ফেরাবেন ? না বাতিলের খাতায় রাখছেন সেটা দেখার।

হতে পারে এরকম – শেষের খবর
সুব্রত মুখার্জি-পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন ও পঞ্চায়েত দপ্তর

শুভেন্দু অধিকারী – পরিবহন দপ্তর এর পাশাপাশি তাকে দেওয়া হলো সেচ ও জল সম্পদ উন্নয়ন দপ্তর

ব্রাত্য বসু – বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রীর দায়িত্বের পাশাপাশি নতুন পেলেন বন মন্ত্রক।
এই দফতরের প্রতিমন্ত্রী করা হলো সুজিত বসু কে। সুজিত বসুর হাতে দমকল দফতরের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব যেমন ছিল তেমন থাকছে।

সৌমেন মহাপাত্র – পাবলিক হেলথ ইঞ্জিনারিং বা জনসাস্থ কারিগরি দফতর। পাশাপাশি শুভেন্দু অধিকারীর হাতে থাকা পরিবেশ দপ্তর দেওয়া হলো সৌমেন মহাপাত্র কে।

রাজিব ব্যানার্জি – অনগ্রসর শ্রেণী কল্যাণ দপ্তর ছিল তার সাথে যুক্ত হল আদিবাসী উন্নয়ন দফতর।

মলয় ঘটক – তার হাত থেকে জনসাস্থ কারিগরি দফতর সরিয়ে নেওয়া হলো। রইল শুধু শ্রম ও আইন দফতর

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: