West Bengal

মাইকে শুনেই হবে পড়াশোনা, কারন পড়াশোনার সাথে পড়ুয়াদের রাখতে হবে সংযোগ

প্রত্যন্ত গ্রামে না আছে টিভি, না আছে ইন্টারনেট তাই লকডাউনে বীরভূমে শুনে শুনেই হবে পড়াশোনা

@ দেবশ্রী : লকডাউনে বন্ধ পাঠশালা। অনেক কষ্টে স্কুলমুখী করা হয়েছিল তাদের। কিন্তু দীর্ঘ লকডাউনে এই পড়ুয়াদের হারাতে নারাজ দিদিমনি-মাস্টারমশাইরা। তাই শ্রুতির হাত ধরলেন তাঁরা। টিভি নেই বেশিরভাগ ঘরে। আর স্মার্টফোন তো দূর অস্ত! তাই মাস্টারমশাইদের ভয়েজ রেকর্ড করে মাইকে তা বাজিয়ে শোনানো হচ্ছে সিউড়ি(১) ব্লকের প্রত্যন্ত আদিবাসী গ্রামের খুদে পড়ুয়াদের। ভাগ করে দেওয়া হয়েছে সময়। কখন বেজে উঠবে প্রথমশ্রেণির বাংলার পাঠ, আর কখনই বা বেজে উঠবে দ্বিতীয় শ্রেণির ইতিহাসের পাঠ। সময় বুঝে তা শুনে নিলে একেবারে পিছিয়ে পড়ার আশঙ্কাটা আর থাকবে না।

লকডাউনের জেরে দীর্ঘদিন ধরে স্কুলে ঝুলেছে তালা। তাই পড়াশোনার পাঠ একেবারে শিকেয় উঠেছে প্রত্যন্ত গ্রামীণ এলাকার খুদে পড়ুয়ারদের। বিষয়টি একদিকে যেমন ভাবাচ্ছে স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের, তেমনই উদ্বিগ্ন জেলা প্রশাসনও। দিন সাতেক আগে সিউড়ি সদর সার্কেলের বিদ্যালয় পরিদর্শক, স্থানীয় দু’টি স্কুলের শিক্ষক, গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ও শিক্ষক সংগঠনের প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠক করেন সিউড়ি (১) ব্লকের বিডিও শিবাশিস সরকার। পড়াশোনার সঙ্গে যাতে একেবারে সম্পর্কচ্যুত না হয় পড়ুয়ারা তা নিয়েই চলে আলোচনা।

সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, এরপর পরীক্ষামূলকভাবে শুরু করা হয় শ্রুতিপঠন। এখন সিউড়ি (১) ব্লকের গজালপুর ও নগরী গ্রামে বাঁধা হয়েছে মাইক। সকালে নির্দিষ্ট সময় অন্তর কখনও মাস্টারমশাইয়ের গলায় বাংলা পড়ানো শুনতে পাচ্ছে পড়ুয়ারা। কখনও দিদিমনি পড়াচ্ছেন ইতিহাস বা ভূগোল। পুরোটাই সংশ্লিষ্ট দিদিমনি বা মাস্টারমশাইয়ের ভয়েজ রেকর্ড করে এনে বাজিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

লকডাউনে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার ব্যবস্থা হয়েছে বিভিন্ন স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে। টিভির মাধ্যমেও মাস্টারমশাইদের সঙ্গে পড়ুয়াদের যোগাযোগ রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু তাতো উঁচু ক্লাসের ছাত্রছাত্রীদের জন্য। প্রত্যন্ত গ্রামের প্রাথমিকের পড়ুয়াদের তো আর এভাবে পড়ানো সম্ভব নয়। তাই এই নতুন ভাবনা। গুরুর মুখে শুনে জ্ঞানলাভ ভারতের চিরন্তন ঐতিহ্য। এভাবেই জন্ম হয়েছিল বেদের। তাই বেদের আরেক নাম শ্রুতি। পরিস্থিতির প্রয়োজনে সেই সুপ্রাচীন পদ্ধতিই ফিরিয়ে আনা হল।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: