Economy Finance

মিউচুয়াল ফান্ডগুলোর সাহায্যে ৫০ হাজার কোটি টাকা ঢালল RBI

সরসরি টাকা মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ হবে না। ব্যাঙ্কগুলিকে বর্তমান রেপো রেটের অনুযায়ী ওই টাকা দেওয়া হবে।

প্রেরনা দত্তঃ করোনাভাইরাসের প্রকোপ এবং তা মোকাবিলায় লকডাউনের জেরে সারা বিশ্বেই শেয়ার বাজারে ধস নেমেছে। আর তার সঙ্গেই তাল মিলিয়ে পতন হয়েছে মিউচুয়াল ফান্ডে। করোনা পরিস্থিতিতে মার্কিন সংস্থা ফ্র্যাংকলিন টেম্পলটনের ৬টি তহবিল মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় ভারতীয় বাজারে তরল টাকার চাপ কমিয়ে আনতে এবং বিনিয়োগকারীদের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে পদক্ষেপ করল

আরবিআই। সোমবার রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (RBI) মিউচুয়াল ফান্ডগুলোর (Mutual Funds) জন্যে বাজারে তরল টাকার জোগান বাড়াতে ৫০,০০০ কোটি টাকার সাহায্যের ঘোষণা করেছে।
সরসারি সেই টাকা মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ হবে না। ব্যাঙ্কগুলিকে বর্তমান রেপো রেটের অনুযায়ী ওই টাকা দেওয়া হবে। সময়সীমা ৯০ দিন ধার্য করা হয়েছে। ওই ৯০ দিনের মধ্যে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের বরাদ্দ টাকা তুলে নিয়ে দিতে হবে মিউচুয়াল ফান্ড সংস্থাগুলিকে।

আজ শীর্ষ ব্যাংকের তরফে জানানো হয়েছে, ২৭ এপ্রিল অর্থাৎ সোমবার থেকে ১১ মে পর্যন্ত কার্যকর থাকবে নগদ চাহিদা মেটাতে RBI-এর সাহায্য। এর মাধ্যমে মিউচুয়াল ফান্ডের প্রয়োজনীয়তা পূরণে ব্যাংকগুলিকে কম হারে সুদ দেবে (Repo Rate) রিজার্ভ ব্যাংক। ঋণের অর্থ ব্যবহার করে মিউচুয়ার ফান্ডের অধীনস্থ বিভিন্ন বন্ড, ডিবেঞ্চারে বিনিয়োগ করবে ব্যাংকগুলি।

ফ্রাঙ্কলিন ভারতে অন্যতম প্রথম সারির মিউচুয়াল ফান্ড সংস্থা যার ৮৬ হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ রয়েছে বিভিন্ন বন্ডে। কিন্তু করোনা আবহে জেরে ধুঁকছে বিভিন্ন কর্পোরেট বন্ড। সেই সব বন্ড বেচে যেমন বিনিয়োগকারীদের টাকা দেওয়া সম্ভব নয়, তেমনই ওই সব বন্ড বেচলে এই মুহূর্তে বড়সড় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে পারে। উভয় সঙ্কটে ভুগছে মিউচুয়াল ফান্ড সংস্থাগুলি।

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের এই পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানিয়েছেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম। তিনি জানান, দুই দিন আগে মিউচুয়াল ফান্ডের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলাম। এত দ্রুততার সঙ্গে তত্পর হওয়ায় আরবিআই-কে ধন্যবাদ জানাই।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: