West Bengal

রাজীবের পর অর্ণবের খোঁজ সিবিআই এর : তৃণমূল বিপদে

সিবিআইয়ের ধারণা রাজীবের পর অর্ণবই সব জানে সারদা তথ্য

নোটিস পাঠাল সিবিআই সারদাকাণ্ডের তদন্তে অর্ণব ঘোষকে । রাজীব কুমারের একদা সহযোগী সারদা তদন্তে গঠিত বিশেষ তদন্তকারী দলের সদস্য ছিলেন অর্ণব। সিটের প্রধান রাজীব কুমারের আস্থাভাজন ছিলেন তিনি।

রাজীব কুমারের পর নজরে অর্ণব ঘোষ, তাঁকে সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরার নোটিস পাঠাল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। বিশেষ সূত্রে জানাযাচ্ছে আগামিকাল হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তাঁকে। সারদা কেলেঙ্কারির সময় বিধাননগরের গোয়েন্দাপ্রধান ছিলেন। সারদাকাণ্ডে গঠিত বিশেষ তদন্তকারী দলের সদস্য ছিলেন অর্ণব ঘোষ।

এরপর নির্বাচন কমিশনের কোপে পড়েন পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে মালদহের পুলিস সুপার পদ সরানো হয় তাঁকে। আইপিএস দের মধ্যে রাজীব কুমারের সাথে ব্যক্তিগত সম্পৰ্ক ভালো অর্ণবের ,এই সূত্রে সিবিআই হয়তো আসা করেছে অর্ণবের কাছে বেশি কিছু তথ্য পেতে পারে। তখন তদন্তে একাধিক তথ্যপ্রমাণ জোগাড় করেছিলেন অর্ণব ঘোষ। নিচুতলার পুলিস আধিকারিকদের কাছ থেকে তদন্তকারীরা জানতে পেরেছেন, একাধিক নথি সংগ্রহ করেছিলেন অর্ণব ঘোষ। সে কারণে তাঁর বয়ান রেকর্ড করেছে সিবিআই। বিশেষ কৌশল নিয়ে শুরু হবে এবারের সাক্ষাৎ , উত্তর না সঠিক ভাবে মিললে হয়তো হেফাজতে নিতে পারে সিবিআই।

এদিকে সিজিও কমপ্লেক্সে তলব করা হয়েছিল বিধাননগর কমিশনারেটের ২ পুলিসকর্মীকে। রাজীব কুমারের নেতৃত্বে প্রথম দিকে সারদা তদন্তে ছিলেন নিচু তোলার কর্মী দিলীপ হাজরা ও প্রভাকর নাথ, এদের মধ্যে প্রভাকর নাথ মঙ্গলবার হাজিরা দেন। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন গোয়েন্দারা। অন্যজন এদিন গড় হাজির ছিলেন।

সোনা যাচ্ছে রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করতে তত্পর হয়েছে সিবিআই। সিবিআই মঙ্গলবার কলকাতার বিশিষ্ট এক ফৌজদারি আইনজীবীর দ্বারস্থ হন তদন্তকারীরা। মঙ্গলবার বেলা ১২টা নাগাদ বালিগঞ্জ প্লেসে আইনজীবী ওয়াইজে দস্তুরের বাসভবনে যান সিবিআইয়ের তিন আধিকারিক। ছিলেন সারদাকাণ্ডের তদন্তকারী আধিকারিক তথাগত বর্ধন ও ২ এসপি পদমর্যাদার অফিসার। তদন্তকারীরা বুঝে নিতে হয়েছেন কি ভাবে কর্মরত আইপিএস দের গ্রেফতার করা যায় , আইনের মারপ্যাচ বুঝে তবে পদক্ষেপ। অন্য দিকে এখনো অধরা রাজীব , উত্তর প্রদেশে সম্ভবত রয়েছেন।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: