Big Story

রাজ্যে কোভিডে মৃত্যু ৫০ ছুঁল,পরিস্থিতি দেখতে কলকাতায় আসছে কেন্দ্রের নতুন দল

পরিস্থিতি বিবেচনা করে এবার কলকাতায় আসছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য আধিকারিকরা।

প্রেরনা দত্তঃ গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজ্যে আরও ২ জনের মৃত্যু হল। তাতে রাজ্যে কোভিডে মৃত্যুর সংখ্যা ৫০ ছুঁল। স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে আরও ৪১ জন কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সোমবার সকাল পর্যন্ত রাজ্যে মোট সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৭৬২।এখনও পর্যন্ত ১৫১ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দল গত কয়েকদিন ধরে কলকাতায় ঘুরে বেরিয়েছেন। সরজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখছে। সেই মতো রিপোর্ট গেছে কেন্দ্রের কাছে। জানা যাচ্ছে, পরিস্থিতি বিবেচনা করে এবার কলকাতায় আসছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য আধিকারিকরা। খোদ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের একটি দল কলকাতা আসছে বলে জানা যাচ্ছে। তাঁরা শহর এবং শহরতলির করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখবেন বলে জানা যাচ্ছে।
রাজ্য সরকার প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, মে মাসের প্রথম তিন দিনে ১৬৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এঁদের বেশির ভাগই কলকাতা এবং সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে ২০টি টিম তৈরি করা হয়েছে।এই টিম দেশের ২০টি এমন জেলায় যাবে, যেখান থেকে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্তের খবর মিলেছে। এই ২০টি জেলার মধ্যেই রয়েছে কলকাতা।তালিকার ১৫ নম্বরে নাম রয়েছে কলকাতার।তালিকার এক নম্বরে রয়েছে মুম্বই।দু নম্বরে আহমেদাবাদ।তিনে দক্ষিণ পূর্ব দিল্লি।চারে মধ্যপ্রদেশের ইন্দৌর।পাঁচে মহারাষ্ট্রের পুণে।এই সব জেলাগুলিতে যে কনটেনমেন্ট জোন রয়েছে, সেগুলিতে নিয়মবিধি আরও কড়াভাবে কার্যকর করার জন্য রাজ্য সরকারগুলিকে সাহায্য করবে কেন্দ্রের এই টিম।

একাধিক শর্ত সাপেক্ষে দুসপ্তাহের লকডাউনের ঘোষণা করা হয়েছে। তার আগে অবশ্যই গোটা দেশকে লাল, অরেঞ্জ এবং গ্রিণ জোনে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। অরেঞ্জ এবং গ্রিন জোনে অনেক ছাড়ও দেওয়া হয়েছে। তবে লাল জোনের ক্ষেত্রে আরও সতর্ক এবং কড়া লকডাউন মানা উচিৎ বলে জানাচ্ছে কেন্দ্র।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: