West Bengal

রাজ্যে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের খরচ নিয়েও রাজ্য সরকার করছে রাজনীতি, অভিযোগের তীর ছুঁড়লেন সুজন চক্রবর্তী

আদতেও কী এত খরচ হয় ? হিসাব কিন্তু মিলছে না। দেওয়া হচ্ছে সকল মিথ্যে তথ্য বলে দাবি সুজনের

@ দেবশ্রী : করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ভূমিকা নিয়ে বারংবার প্রশ্ন তুলেছে বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী। এবারে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার নিয়ে রাজ্য সরকারের সমালোচনায় বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী। রাজ্যের জেলায়-জেলায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের খরচ নিয়ে রাজ্যের দেওয়া হিসেবের পরিপ্রেক্ষিতে প্রশ্ন তুলেছেন বাম নেতা। এই ব্যাপারে শাসকদল তৃণমূলকে কাঠগড়ায় তুলেছেন সুজন। কটাক্ষ করতে ছাড়েননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও।

লকডাউনের জেরে দেশের একাধিক রাজ্যে আটকে পড়েছিলেন লক্ষ-লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক। রেল ও সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলির উদ্যোগে আটকে পড়া শ্রমিকদের তাঁদের নিজেদের রাজ্যে ফেরানো হয়। এখনও অনেকেই ফিরে আসছেন তাঁদের রাজ্যে। এদিকে, বাংলাতেও গত কয়েক সপ্তাহে লক্ষ-লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক ফিরেছেন। পরিযায়ীরা রাজ্যে ফিরতেই করোনার সংক্রমণ অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে।

ভিনরাজ্য থেকে ফেরা পরিযায়ীদের জন্য জেলায়-জেলায় খোলা হয়েছে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার। রাজ্য প্রশাসনের উদ্যোগে সেখানেই রাখা হচ্ছে পরিযায়ী পরিযায়ীদের। রাজ্য সরকারের দাবি, সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিরগুলির জন্য ৩ কোটি টাকা দৈনিক খরচ হচ্ছে, এমনই তথ্য ট্যুইটে জানিয়েছেন বাম নেতা সুজন চক্রবর্তী।

রাজ্যে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের খরচ নিয়ে রাজ্য সরকারের তুমুল সমালোচনায় মুখর হয়েছেন সুজন চক্রবর্তী। এ ব্যাপারে শাসকদল তৃণমূলকেও একহাত নিয়েছেন সুজন। ছেড়ে কথা বলেননি তিনি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও।

টুইটে সুজন চক্রবর্তী এপ্রসঙ্গে লিখেছেন, ‘রাজ্যে তথ্যের কোন মা বাপ থাকছে না ! পদে পদে কেবলই মিথ্যা। সরকারি কোয়ারান্টাইনের খরচ দিনে নাকি ৩ কোটি টাকা। আছেন ২২ হাজার জন। সরকারেরই হিসাব। তাহলে মাথাপিছু দৈনিক খরচ ১৩ শত টাকা। কেউ বিশ্বাস করবেন? হোটেলের খরচকেও হার মানায় যে ! এখানেও কাটমানি? কত? ৮০ শতাংশ? উত্তর দেবেন @MamataOfficial?’

এখনও পর্যন্ত বাম পরিষদীয় দলের নেতা সুজন চক্রবর্তীর তোলা এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে পাল্টা কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি রাজ্য সরকারের তরফে। এমনকী শাসকদল তৃণমূলের কোনও নেতাও সুজনের অভিযোগ নিয়ে মুখ খোলেননি। প্রতিক্রিয়া দেননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: