Weather

রেকর্ড ভাঙল দিল্লির ঠান্ডা, তাপমাত্রা নেমে দাঁড়িয়েছে ২.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

দিল্লিতে চলছে শৈত্যপ্রবাহ, মানুষ প্রায় গৃহবন্দী অবস্থায়।

@ দেবশ্রী : বছরের শেষ হতে চলেছে আর সেই সময়ে জাঁকিয়ে শীত পড়েছে। আর এই হাড় কাঁপানো ঠান্ডায় রেকর্ড গড়ল দিল্লি শহর। গত ১৯০১ সালের পর ফের ২০১৯- এ ফিরে এল সেই ঠান্ডা। আজ সকালে রাজধানী দিল্লির তাপমাত্রা ছিল ২.৪ ডিগ্রি। ডিসেম্বর ১৪-র পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ঠান্ডা অনুভব করল দিল্লি।

রেকর্ডভাঙা ঠান্ডায় কাবু দিল্লি। তারপর শেষ কবে রোদের মুখ দেখেছিল তা প্রায় ভুলেই গেছে দিল্লিবাসী। এই প্রবল ঠান্ডার কারনে খানিকটা হলেও ব্যাহত হচ্ছে জনজীবন। রীতিমতো প্রায় গৃহবন্দী হয়ে রয়েছে দিল্লিবাসী। তার উপর দূষণ তো রয়েছেই। কুয়াশা ও ধোঁয়াশার কারণে বাতিল হয়েছে বহু ট্রেন এবং বিমান।

দিল্লির সফদরজঙ্গ এলাকায় পারদ ছুঁয়েছে ২.৪ ডিগ্রিতে। পেলাম এলাকায় তাপমাত্রা ৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। লোধি রোডের তাপমাত্রা ১.৭ ডিগ্রি। আয়া নগরে আজকের তাপমাত্রা ১.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দিল্লির রেল ও বিমান পরিষেবা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শনিবার সকাল থেকে বাতিল করা হয়েছে চারটি বিমান। দৃশ্যমানতা কম থাকায় দিল্লিতে অবতরণ করতে পারেনি কোনও বিমান। প্রায় ২৪টি ট্রেন দেরিতে চলছে বলে খবর। রাস্তাঘাটেও যানজট দেখা দিচ্ছে। গাড়িঘোড়ার গতিবেগও বেশ কম।

১৪ ডিসেম্বর থেকেই দিল্লিতে এই শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে। প্রতিদিনই কমছে পারদের মান। গতকাল রাজধানীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রি কম। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ১২.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত দু’দশকে ১৯৯৭, ১৯৯৮, ২০০৩ ও ২০১৪ সালে এভাবে একটানা শৈত্যপ্রবাহ দেখা গিয়েছে দিল্লিতে। সবথেকে শীতলতম দিনের তকমা ছাপিয়ে আরও শীতল হয়েছে দিল্লি। গোটা উত্তর ভারত জুড়ে ঠান্ডায় পারদ নামছে দ্রুত গতিতে। লাদাখ, জম্মু-কাশ্মীরে মাইনাসে চলে গেছে তাপমাত্রা। অনুমান করা যাচ্ছে আরও কমতে পারে পারদের মান।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: